«

»

কিভাবে ইন্টারনেট এর সাহায্যে ফাইল আদান-প্রদান করা হয় ? আসুন জেনে নিই

আমরা তো কম বেশী সবাই ইন্টারেনেট এর সাহায্যে বিভিন্ন রকমের ফাইল একে অপরকে পাঠিয়ে থাকি। কিন্তু কখনো কি চিন্তা করে দেখেছেন এই ফাইল ইন্টারেনেট এর মাধ্যমে কিভাবে প্রেরন করা বা গ্রহন করা হয়। আজ আমি আমি আমার এই পোষ্টে সেই বিষয়টি ব্যাখ্যা করব:~


OSI model কে ব্যবহার করা হয় নেটওয়ার্ক এর মধ্যে কিভাবে যোগাযোগ স্থাপন হয় সেটিকে বুঝানোর জন্য। এই OSI model ১৯৭৮ সালে প্রবতির্ত হয় International Organization for Standardization (ISO) দ্বারা। এই OSI model এর সাহায্যে সাতটি ধাপে ফাইল পাঠানো এবং গ্রহন এর কাজ করা হয়। আর এই OSI model এর সাতটি ধাপগুলো হল :~

* Application Layer : যখন আপনি কোন ফাইল ইন্টারেনেট এর সাহায্যে পাঠান তখন Application Layer ঐ ফাইলের জন্য নেটওয়ার্কে প্রবেশ পথ হিসেবে কাজ করে। আপনার পাঠানো ফাইলগুলো প্রথমে Application Layer-এ এসে হাজির হয় নেটওয়ার্কে তার প্রবেশ টিকিট পাওয়ার জন্য।

* Presentation Layer : আপনার পাঠানো ফাইলগুলো যখন Application Layer এর প্রবেশ টিকেট পায় তখন সেই ফাইলটি Presentation Layer-এ এসে হাজির হয়। এই Presentation Layer এর কাজ হল ঐ ফাইলগুলোকে নেটওয়ার্কের উপযোগী বিভিন্ন syntax -এ রুপান্তর করা। আর আপনার পাঠানো ফাইল যখন আপনার প্রেরকের নিকট চলে আসে তখন এই Presentation Layer ঐ ফাইলকে আবার কম্পিউটার উপযোগি Syntax-এ রুপান্তর করে নেয়।

* Session Layer : এই Session Layer কাজ হল প্রেরক এবং প্রাপকের মধ্যে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে নেটওয়ার্কের স্থাপন নিশ্চিতকরন করা।

* Transport Layer : এই Transport Layer এর কাজ হল ফাইলগুলোকে যেভাবে পাঠানো হয়েছে ঠিক সেইভাবে প্রাপকের নিকট কোন ধরনের তথ্য না হারিয়ে বা কোন ফাইল কপি না করে ঠিকভাবে প্রেরন করা। যখন কোন ফাইল নেটওয়ার্কের মাধম্যে পাঠানো হয় ত্তখন সেই ফাইলকে বিভিন্ন অংশে বিভক্ত করে প্রাপকের নিকট পাঠানো হয়।

* Network Layer : এই Layer এর কাজ হল প্রেরকের নেটওয়ার্কের মাধ্যম চিহ্নিত করা এবং সেই নেটওয়ার্ক দিয়ে অন্যান্য নেটওয়ার্কে যোগাযোগ স্থাপন করা।

* Data-Link Layer : এই Layer-টির কাজ হল কোন ধরনে ভুল ছাড়া পাঠানো ফাইলগুলোকে এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে (নেটওয়ার্কের মাধম্যে) পাঠানো।

* Physical Layer : এই Layer এর সাহায্যে প্রেরকের পাঠানো ফাইলগুলো প্রাপকের কম্পিউটারে এসে হাজির হয়।

***আমরা যখন কোন ফাইল ডাউনলোড করি তখন এই উপরের সাতটি ধাপ ধারাবাহিকভাবে সম্পন্ন করে ডাউনলোডকৃত ফাইলটি আমাদের কম্পিউটারে আসে ।

(তথ্যসূত্র http://www.itechbangla.com )


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

Yahoo আইডির পাসওয়ার্ড পরিবর্তনের উপায়
নতুন করে শুরু হলো মোবাইল উপযোগী সাইট
কিভাবে ফেসবুক একাউন্ট থেকে গুগল প্লাস একাউন্টে ছবি স্থানান্তর করবেন?
গুগল ম্যাপ টোটাল সল্যুশনঃ অ্যাপ্রুভ করে নিন আপনার এডিট!!
আমার প্রথম পেমেন্ট প্রুফ, শুধু ব্রাউজার ওপেন রেখেই ইনকাম
এক নজরে দেখে নিন Grameenphone এর 3G এবং 2G Internet Packages গুলি !
বাংলা video tutorial সহ 8th Payment পাওয়ার পর এ পোস্ট টা লিখলাম ১০০% payment করে ,যদি পারেন কাজ করেন...

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

Avijit

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/web-internet/avijit/8354

7 comments

Skip to comment form

  1. জি এম পারভেজ@liTu

    আজানা তথ্য হিস্ সা
    দেয়ার জন্য ধন্যবাদ

  2. MNUWORLD

    তথ্যগুলো জানতাম নাহ। জানানোর জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

  3. Avijit

    সবাইকে শুভেচছা রইল।অজানা গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়টি অনেককে জানাতে পেরে নিজেকে খুব সুখী মনে হচ্ছে।

  4. নাহিদ আনোয়ার
    dihan91

    বড়ই আচানক এই প্রযুক্তি !

  5. zahid hassan

    ধন্যবাদ ভাই , বিষয় গুলো জানানোর জন্য

  6. Tareq Musa

    ami ai lekha ta facebook e share korte chai. kintu kivabe? akhane facebook er link pelam na.

  7. kedar2222

    প্রিয় বন্ধু, সুন্দর ও কাজের পোষ্ট শেয়ার করেছেন……. নতুন কিছু শিখতে পারলাম……. শেয়ার করার জন্ন আপনাকে ধন্নবাদ…….

মন্তব্য করুন