«

»

আজ সাকিব আল হাসান এর বিয়ে আসুন ঘুরে আসি

প্রথমে বলে নেই এটি বাংলদেশের এটি দৈনিক পত্রিকা থেকে নেয়া খবর

শিশিরে সিক্ত হতে যাচ্ছেন সাকিব আল হাসান। সোমবার মিরপুর স্টেডিয়াম পাড়াতেও শিশিরকে সঙ্গ দিয়েছেন তিনি। ইনজুরির কারণে মাঠে নামেননি, তবে জীবনের মাঠে ছিলেন সরব।

বলের গতি যেমন ঝোড়ো, ব্যাট হাতেও তেমনি সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশে জন্ম নেয়া বিশ্বের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার। মাঠ দাপিয়ে দর্শকের মন কাঁপানো মাগুরার ছেলে সাকিব দেশ-বিদেশে অনেক তরুণীর হৃদয়েও ঝড় তুলেছেন। সেই ঝড়ের তোড় কাকে কোথায় নিয়ে যাবে তা বলা মুশকিল। তবে বিশেষ দিন ঘিরে সাকিব ও তার প্রেমিকা শিশিরের পরিবার আজ বসছেন উৎসব আনন্দে। রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে নারায়ণগঞ্জের প্রবাসীকন্যা শিশিরের সাথে তার জীবনের আনুষ্ঠানিক ইনিংসটা শুরু হতে যাচ্ছে। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডে তাদের পরিচয়। সাকিব গিয়েছিলে খেলতে! মানে, ক্রিকেট খেলতে। খেলা দেখতে এসেছিলেন শিশির। কাউন্টিতে নজরকাড়া পারফরম্যান্সের পাশাপাশি সাকিব পেলেন নতুন দিনের সাথী। প্রথম দেখাতেই শিশিরকে ভালো লেগে গেলো ক্রিকেটপাগল ছেলেটার। যে জীবনের ধ্যান ও জ্ঞান মনে করেছেন ক্রিকেটকে, তার চোখে এক রূপবতী শিশিরের শিশির মাখা হাসি ভাসতে থাকল। বদলে যেতে থাকল জীবনের চাওয়াগুলো।

খেলার সাথে সাথে প্রেমটাও প্রতিদিনের অনুশীলনে চলে এলো। ২০১০ থেকে ২০১২ । পাক্কা দুই বছর তারা চুটিয়ে প্রেম করলেন। খেলার পাড়ায় খেলুড়ে বালকদের মধ্যে এ নিয়ে কম শোর ছিল না। তবে সব ছাপিয়ে মিডিয়ায় এটি সেভাবে আলোচিত হয়নি। ১০ বছর বয়সে মা-বাবার সাথে যুক্তরাষ্ট্র পাড়ি জমানো কন্যা শিশির হয়তো কখনোই ভাবেননি ফের তাকে দেশে ফিরতে হবে। একেবারেই সংসার-ঘরকন্না করার জন্য। কিন্তু নিয়তি! সে লিখে রেখেছে অনেক আগেই। তাই সাকিবের সাথে প্রেম-বিয়ে। অতঃপর বলা হচ্ছে তারা ঢাকায় থাকবেন।

দুইটি ফ্যাটের মালিক সাকিব। তার একটিতে বসত করবেন দুইজনা। ফেসবুকজুড়ে এখন সাকিবের বিয়ের আলাপ। দু’জনেরই ছবি আপলোড হয়েছে। আধুনিকা-সাহসিকা কন্যা ওয়েস্ট ইন্ডজের বিপক্ষে বাংলাদেশের খেলা দেখতে সোমবার মিরপুর স্টেডিয়ামেও গেছেন। সাকিব হবু বধূকে পরিচয় করিয়ে দেন খেলার মাঠের সহযোগীদের সাথে। সবাই মিলে এক চোট আনন্দ-উচ্ছ্বাস করে নিলেন। তারাও থাকছেন আজকের আনন্দ আয়োজনেও। ঘনিষ্ঠজনদের সাথে নিয়ে এ আয়োজনের তারিখটা নিয়েই পরিবারের আগ্রহ ছিল অনেক। তাই দিনটি বেছে নেয়া হয়েছে বলে দুই পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে পরিবারের সাথে থাকতেন শিশির। থাকতেন বলছি এখন থেকে আর থাকা হবে না বলে। পড়াশোনাটা করেছেন মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২৩ বছরের তন্বী তরুণী ইতোমধ্যে শেষ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েশন। বছর দুয়েক আগে যুক্তরাজ্যে বেড়াতে গিয়ে এক অনুষ্ঠানে অল রাউন্ডার সাকিবের চোখে পড়েন শিশির। শিশিররা চার ভাই, দুই বোন। বাবা ছিলেন অগ্রণী ব্যাংকের চাকুরে। যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী এ ব্যাংকারের কন্যার সাথে বিশ্বের এক নম্বর অল রাউন্ডারের বিয়েটা নিয়ে তাই আগ্রহ সবার। ফেসবুক, টুইটার ও ব্লগে এ নিয়ে আলাপ-আলোচনা বিস্তর।

সবারাই শুভ কামনা তাদের দু’জনের জন্য। এর মধ্যে অবশ্য অনেক তরুণীর চাপা অভিমানও দেখা যাচ্ছে। সব ছাপিয়ে আনন্দ এ আয়োজনের শুভকামনা করেছেন সবাই। শুভ হোক সাকিবের জীবনের নতুন ইনিংস।

এটি আমার সাইট ঘুরে আসতে পারেন


মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

meraj4040

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/uncategorized/meraj4040/35236

1 comment

  1. Md. Shahinur Alam

    দোয়া করি উনাদের সংসার জীবন সুখি হোক।

মন্তব্য করুন