«

»

বিজয় সফটওয়্যারে ট্রোজান : গোপনে গ্রাহকের তথ্য চুরি করছেন মোস্তফা জব্বার!

বিজয় সফটওয়্যারে ট্রোজান : গোপনে গ্রাহকের তথ্য চুরি করছেন মোস্তফা জব্বার!

========================================

তথ্যপ্রযুক্তিবিদ হিসেবে পরিচিত মোস্তফা জব্বার তার বিজয় সফটওয়্যারে ক্ষতিকর কোড সংযোজন করে গ্রাহকের তথ্য চুরি করছেন দীর্ঘদিন ধরেই। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের জন্য তার সাম্প্রতিকতম সফটওয়্যার ‘বিজয় একুশে’ এবং ‘বিজয় একাত্তরে’ এই ধরনের কোডের খোঁজ মিলেছে। বিজয় সফটওয়্যারের উল্লেখিত দুটি সংস্করণেই TR/Spy.Gen নামের একটি ট্রোজানের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। সুপরিচিত এভিরা অ্যান্টিভাইরাস তাদের ভাইরাস ল্যাবের বিবরণীতে জানাচ্ছে, ট্রোজানটির কাজই হচ্ছে ব্যবহারকারীর তথ্য চুরি করা।

ভাইরাস ল্যাবের বিবরণী: http://www.avira.com/en/support-threats-summary/tid/3648/threat/TR.Spy.Gen

মোস্তফা জব্বার বিজয়ের ভেতরে প্রায়ই নানা ধরনের সফটওয়্যার ভরে দিয়ে থাকেন। তাতে অজান্তে ভাইরাস লুকিয়ে থাকতেই পারে। ভাবলাম, সেরকম কিছু নয় তো? সেই ভাবনা থেকে বিজয় একুশের মূল ইএক্সই ফাইলটিকে এক্সট্রাক্ট করে দেখলাম। পাওয়া গেল পাঁচটি ফোল্ডার – app, fonts, userappdata, embedded এবং sys. এর মধ্যে app ফোল্ডারে বিজয়ের মূল ফাইলগুলোর দেখা মিলল। এবং বিস্ময়করভাবে এভিরা অ্যান্টিভাইরাস সেখানেই “Bijoy Ekushe,1” নামের একটি ইএক্সই ফাইলের ভেতর থেকে একটি ভাইরাস খুঁজে বের করে ফেললো। তবু দ্বিধা কাটে না। ফলে অনলাইনভিত্তিক সুপরিচিত ভাইরাস স্ক্যানার জট্টি এবং ভাইরাস টোটালের শরণাপন্ন হতেই হল। সেখানেও ফলাফল একই। ভাইরাস টোটালে দেখা গেল, গত বছরের ১৫ জুন কোনো এক ইউজারের পরীক্ষাতেও বিজয়ে এই ট্রোজানটির খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল।

বিজয় একুশের মূল ইএক্সই ফাইল: http://legroom.net/software/uniextract

ফলাফল : https://www.virustotal.com/file/2725b6f5994442d518c4b29a03e839f5c856c34eb8d945aaf32abc2a33626808/analysis/1329853996/

>> গ্রাহকের ‘তথ্য বা উপাত্ত নিয়ে’ কিসের কাজ? <<

বিজয় সফটওয়্যারে ট্রোজানের অস্তিত্ব হেলাফেলার বিষয় নয়, আবার ফলস বলে উড়িয়ে দেওয়াও যাচ্ছে না। কারণ মোস্তফা জব্বার তার নিজের সাইটে দেওয়া বিজয়ের নির্দেশিকায় স্পষ্টভাবেই জানাচ্ছেন – “ইন্সটল বিজয় কম্পিউটারের নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা থেকে তথ্য বা উপাত্ত নিয়ে কাজ করে। এজন্য কম্পিউটারে অন্তত পক্ষে নেটওয়ার্ক ব্যবস্থার অংশ হিসেবে নেটওয়ার্ক কার্ড থাকতে হবে। কম্পিউটারের মাদারবোর্ডে নেটওয়ার্ক বিল্টইন থাকতে পারে। আবার আলাদা নেটওয়ার্ক কার্ড স্থাপন করতে হতে পারে। আনন্দ কম্পিউটার্স সফটওয়্যারের সাথে একটি নেটওয়ার্ক কার্ড সরবরাহ করতে পারে। এই অবস্থায় নেটওয়ার্ক কার্ডের পাসওয়ার্ডও প্রদান করা হয়।…”

বিজয়ের নির্দেশিকা: http://www.bijoyekushe.net/index.php?action=bijoy71_Win

>> যে প্রশ্নের উত্তর জানা জরুরি<<

ইন্টারনেটভিত্তিক নানা কাজে অভ্রের একচ্ছত্র চাহিদা থাকলেও বাংলাভাষী প্রচুর মানুষ পেশাদারি নানা কাজে বিজয় সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে থাকে। সেই সফটওয়্যারে গোপনে ক্ষতিকর কোড সংযোজন করে মোস্তফা জব্বার কী করছেন – এই প্রশ্নের উত্তরটি জানা জরুরি।


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

জেনেনিন কিভাবে ফেসবুক বন্ধুকে, ইয়াহু মেইল এর Contacts এ আনবেন
ভালোবাসার দিনে দুটি অনু কাব্য
বর্তমান বিশ্ব সাধারণ জ্ঞান(৬)
ছোট্ট একটা টিপস ফেইসবুক হ্যাক বলতে পারেন...
টেলিটক নিয়ে এল ফ্ল্যাশ মাইফাই রাউটার ডিভাইস
আকর্ষণীয় অফার !! সুপার অফার !!
আপনার এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে ইন্টারনেট থেকে আয় করুন প্রতিদিন ৮/১০ ডলার ১০০% গেরান্টি আয় হবেই সাথে আম...

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

অরন্য নিলয়

নীল আকাশ ছুঁয়ে দিতে ইচ্ছে করে। কিন্তু পড়া লেখা করতে ইচ্ছে করে না :(

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/uncategorized/aronno-niloy/21410

8 comments

Skip to comment form

  1. আরিফুল ইসলাম (শাওন)

    কাহিনী কি সত্য?????:O

  2. ধুর ভাল লাগেনা...
    তামিম(বাংলার মানুষ)

    কাগু আমি তামিম তোমারে ভুলি নাই!……. >_<

  3. MNUWORLD

    আমি এটা কি দেখিলাম!!!! এটা কি আসলেই!!!! জব্বার কাগু ইহা করিতে পারিলেন!!!

  4. Rubel Orion

    কিছু কইতে মন চায়! :/

  5. Sadik
    Sadik

    এগুলা কি? শেষমেশ মানুষ নিরাপদে বাংলাও লিখতে পারবেনা……………

  6. HALIM
    HALIM

    অরণ্য নিলয়, যদি ঘটনা সত্যি হয়, তাহলে আপনি দয়া করে এ নিয়ে নিউজ পেপারে কিছু লিখেন অথবা, সাংবাদিক ভাইদের ও এটা বলতে পারেন। তাহলে আমার আপনার সর্বোপরি বাংলাদেশের মানুষের অনেক লাভ হবে। আমি অনুরোধ করব, যেভাবে আপনি আজ আমদের জানালেন; সেভাবে বাংলার কোটি কোটি মানুষকে জানান।

  7. Shawon584

    ভাই আমার কাছে বিজয় ৭১ এর অরিজিনাল সিডি আছে, এভিরাও আছে। তেমন কিছু তো পেলাম না।

  8. রেজওয়ানুর রহমান পান্থ
    রেজওয়ানুর রহমান পান্থ

    বিজয় আনইন্সটল করার পরও-এর কিছু ফন্ট(আরিয়াল,অপরাজিতা,কলিঙ্গ) ডিলিট করা যায় না। ডিলিট করতে গেলে বলে এইগুলা নাকি সিস্টেম প্রটেক্টেড ফাইল। এমনকি উইন্ডোজ সেটআপ দেওয়ার পরও যদি আপনি Fonts ফল্ডার-এ যান, সেখানে ঐ ফন্ট-গুলা দেখতে পাবেন।

মন্তব্য করুন