«

»

arefin

ফ্রি মাইনিং করে আয় করুন।১০০% বিশ্বস্ত সাইট।৩০,০০০ সাতোশি হলেই ক্যাশ আউট।

বর্তমানে বিটকয়েনের মুল্য বৃদ্ধি পেয়ে ১বিটকয়েন= ২০০০০ ডলার ছাড়িয়েছে যা একসময় ৫০০-৭০০ ডলারের মধ্যে ছিল। দিন দিন ক্রিপ্টোকারেন্সীর গুরুত্ব বেড়েই চলছে এর ফলশ্রুতিতে অনেক নতুন নতুন ডিজিটাল কারেন্সী মার্কেটে আসছে। আমাদের উচিত কিছু নতুন নতুন কয়েন রির্জাভ করা যেমনঃ ডগি কয়েন, লাইট কয়েন, ইথারাম ইত্যাদি। এজন্য মাইনিং হচ্ছে একমাত্র উপায়।

মাইনিং বিষয়ে কমবেশি হয়ত সবাই জানে। সাধারণত মাইনিং বলতে নিজ কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপের মাধ্যমে একটি মাইনিং সফটওয়্যার চালিয়ে মাইন করাকেই বুঝায়। আর বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ক্রিপ্টোকারেন্সীই মাইন করা হয়ে থাকে। পিসিতে মাইনিং সফটওয়্যার চালিয়ে আয় করা করা সম্ভব কিন্তু এরকম মাইনিং কিছু সমস্যা আছে যেমন পিসি বা ল্যাপটপ যেখানে মাইনিং সফটওয়্যার থাকবে সেটা সবসময় চালিয়ে রাখতে হবে এতে পিসির আয়ু কমে যায় অথবা বিদ্যুৎ বিল বেশী উঠে। ওপরে যে সমস্যাটির কথা বলা হল, সেই সমস্যার সমাধানের জন্যই ক্লাউড মাইনিং এর উৎপত্তি। এখানে মুলত আপনি নিজেই নিজের কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপে মাইন না করে, আপনি কোন থার্ড পার্টি প্রতিষ্ঠান মাধ্যমে ওয়েবসাইটে ইনভেস্ট করবেন এবং তারা আপনার জন্য তাদের হার্ডওয়্যার এবং মাইনিং সেটাপ ব্যবহার করে মাইন করবে এবং আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমান প্রোফিট দেবে।
ক্লাউড মাইনিং এ ইনভেস্টমেন্ট লাভজনক কিন্তু সমস্যা অনেক কারন আপনি ট্রাষ্ট করার মত ওয়েবসাইট পাবেন না। বেশীরভাগ ওয়েবসাইটই স্ক্যাম। তারা আপনার কাছ থেকে ইনভেস্টমেন্ট নিবে এবং কয়েকদিন আপনাকে প্রোফিট দিবে এবং এরপর আরো বেশি লাভ পাওয়ার জন্য আপনি আরো বেশি ইনভেস্ট করবেন এবং সর্বশেষে দেখবেন ওয়েবসাইট উধাও। আপনাকে স্ক্যাম করে চলে যাবে বা সাইট ডাউন করে দেবে।
কিন্তু তার মানে এই না যে পৃথিবীর সব ক্লাউড মাইনিং সাইটই স্ক্যাম।নিচে আমি ১টা ১০০% বিশ্বস্ত ক্লাউড মাইনিং সাইট দিচ্ছি যেখানে ইনভেস্ট না করে ও আপনি ইনকাম করতে পারবেন কারন এখানে আপনি অ্যাকাউন্ট খুললে ওরা আপনাকে ১০০ GH/S দিবে যা দিয়ে আপনি মাইনিং শুরু করতে পারবেন আর প্রতিদিন যে পরিমান আয় হবে তা দিয়ে আপনি আরো Hash-rate কিনবেন।
সাইটটিতে সাইনআপ করুন।

তারপর আপনার মেইল এ ভেরিফিকেশন লিংক এ ক্লিক করে একাউন্ট ভেরিফিকেশন কমপ্লিট করুন।

মেইল এ ভেরিফিকেশন করার পর কার্সর এই বক্সে রেখে GHS 4.0  সিলেক্ট করুন:

তারপর Products এ গিয়ে Faucet  সিলেক্ট করেন।

রিলোড হয়ে নীম্নরুপ একটি ক্যাপসা আসবে, ক্যাপসা পুরন করে প্রতিদিন আপনার ফ্রি মাইনিং পাওয়ার নিবেন।

মাইনিং পাওয়ারটি হবে নীম্নরুপ:

এবার Accounts এ  ক্লিক করুন Cloud Mining এ আপনার মাইনিং পাওয়ার দেখাবে।

এটাকে বলা হয়  GHS 4.0 পাওয়ার। এই GHS 4.0পাওয়ার দিয়ে আপনি পিসি অন রেখে প্রতি দিন Cloud Mining করে বিটকয়েন, লাইট কয়েন, ডগি কয়েন সহ অন্যান্য সকল কয়েন আয় করতে পারবেন।

এবার আসুন কিভাবে Cloud Mining করবেন ? ধরুন আপনি ডগি কয়েন মাইটিং করতে চাচ্ছেন, তাহলে বক্সে ডগি কয়ে সিলেক্ট করুন। অটো মাইনিং শুরু হয়ে যাবে।

 তবে, প্রতি দিন  GHS 4.0 পাওয়ার আয় করতে ভুলবেন না যেন।

না বুজলে ভিডিও টিওটোরিয়াল দেখে নিন। সবকিছু বুঝতে পারবেন।

ভিডিও দেখুন:

সবাইকে ধন্যবাদ পোস্ট টি পড়ার জন্য। কোন সমস্যা হলে কমেন্টে জানাবেন।


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

‍ভিডিও এডিটিং পর্ব -2 ইউলিড মিডিয়া স্টুডিও ইন্টার ‍ফেস
ডাউনলোড করে নিন Windows 7 এর জন্য চমৎকার কিছু Skin pack
নিজে নিজে Adobr Illustertrator শিখতে চাইলে PDF ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন
Virtual Dollar ক্রয় বিক্রয়ের একটি বিশ্বস্ত নাম আরডিবিসিওয়ালেট।
Virtual Dollar ক্রয় বিক্রয়ের একটি বিশ্বস্ত নাম আরডিবিসিওয়ালেট।
1বিটকয়েন= 10,000 ইউএস ডলার,ফ্রিতে বিটকয়েন আর্ন করুন, কোন প্রকার ইনভেষ্টমেন্ট ছাড়া,ট্রাষ্টেট সাইট থেক...
1বিটকয়েন= 17,000 ইউএস ডলার,ফ্রিতে বিটকয়েন আর্ন করুন, কোন প্রকার ইনভেষ্টমেন্ট ছাড়া,ট্রাষ্টেট সাইট থেক...

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

arefin

arefin

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/uncategorized/arefin/78753

মন্তব্য করুন