«

»

এএমডি. আব্দুল্লাহ্

নারী দিবস উপলক্ষে অবিস্মরনীয় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য আনা-ফারিয়া আপাকে অভিনন্দন! আসুন আনা-ফারিয়া আপার এই কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের প্রতিবেদনটি পড়ি!!

৭৮৬

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সাবাই এক প্রকার কুশলেই আছেন। আজকের দিনের শুরুতে মূলত আপনাদেরকে ভিন্ন ইমেজের একটি পোষ্ট উপহার দিব। তারমধ্য এই পোষ্টটি শুরু করছি শিক্ষাবিষয়ক প্রতিবেদন টপিস নিয়ে। আপনারা জানেন যে, প্রতি বছরের ন্যায় বাংলাদেশেও আন্তজার্তিক নারী দিবস উদযাপন করা হয়।এবং এবারও করা হয়েছে। নারী দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন পত্রিকা ও মিডিয়াতে বিভিন্ন টপিস নিয়ে ফলাও করা হয়। এখানে নারীদের বিভিন্ন প্রতিবেদন তুলে ধরা হয় যেমন- কত জন নারী উক্ত বছরে কাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছেন অথবা সফল উদ্যোক্তা কে হয়েছেন সেটা চাকুরী হোক, ব্যবসা হোক কিংবা পড়াশোনা হোক যে কোন কর্মক্ষেত্রকেই বলতে পারেন! এখানে মুলত নারীদের অধিকাংশ সফলতার কথা তুলে ধরা হয়। তাছাড়া নারীদের অসুবিধার কথাও কিন্তু বাদ যায়না- যেমন কে কোন নারী অসুবিধার মধ্য রয়েছেন, সামাজিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত কিংবা পুরুষ শাসিত সমাজে কেউ কোন নির্যাতন, নিপীড়ন হয়েছেন কিনা ইত্যাদি নানাবিধ আলোচনা সমূহ। নারীদিবসে কিন্তু মাননীয় সরকারের পক্ষ থেকেও বিভিন্ন সেমিনার করা হয়ে থাকে। এখানে নারীবিষয়ক নানাবিধ আলোচনা স্থান পায়, অনেক ফলপ্রসু আলোচনা হয়ে থাকে। তাছাড়া বিভিন্ন নারী উদ্যেক্তা বা প্রতিভাবানদের সরকারের পক্ষ থেকে পূরষ্কৃত করা হয়।

এখানে নারী দিবসে আমাদের দেশের নারীদের পাশাপাশি কিন্তু বিদেশী বা ভিনদেশী নারীদের নিয়েও অনেক কিছুই প্রতিবেদন পত্রিকাতে রিভিউ করা হয়।

 যাইহোক অবশ্য নারী দিবসে গতদিনে উদযাপন হয়ে গেছে। এখানে এই বিষয়ে হয়ত অনেকেই পেপার বা মিডিয়াতে অনেক আলোচনা, সেমিনার দেখেছেন। আবার অনেকেই উক্ত সেমিনারে অংশ গ্রহন করলেও করেছেন।

মূলত নারী দিবস উপলক্ষে তো বিভিন্ন পত্রিকাতে নারীদের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড কিংবা সফলতা নিয়ে অনেক কাহিনীই প্রতিবেদন হিসাবে উঠে এসেছে। হয়ত বিভিন্ন প্রযুক্তি বিষয়ক ব্লগেও উঠে আসতে পারে কিংবা প্রকাশিত হয়েছে সফল কোন নারীর সফলতা কাহিনী নিয়ে।

সেটা যাই হোক আমার জানামতে টেক টুইটস সাইটে কিন্তু এই বিষয়ে কোন রিভিউ চোখে পড়েনি। কিংবা কোন ব্লগার এই বিষয়ে কোন পোষ্ট করেছেন কিনা তাও আমার জানা নাই।

 তবে আমি কিন্তু আজ এই বিষয়ে একটি ছোট প্রতিবেদন আপনাদেরকে উপহার দিব। সেটা একজন সফল নারীর কৃতিত্বতা ও সফলতার গল্পের সাথে পরিচয় করিয়ে দিব। অবশ্য অনেকেই হয়ত জাতীয় পত্রিকাতে এই প্রতিবেদনটি পড়ে থাকবেন্ তবুও আমি রিপিট হিসাবে প্রকাশ করছি-

 এখানে নারী দিবসে সফলকামী নারী হিসাবে যাকে পরিচয় করিয়ে দিব বা আজকে ১ম পোষ্টটিতে এখানে উল্লেখ করছি তিনি মূলত একজন শিক্ষার্থী। নাম-আনা ফারিহা। এই বছরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের চূড়ান্ত ফলাফলে স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষাতে CSE বিভাগে মেধা তালিকাতে ১ম শ্রেণীতে ১ম হয়েছেন। আসলেই 100% Pure! Excellent Result. আমার মতে বাংলাদেশে যদি গিনেসবুকস কর্তৃপক্ষের বাড়ী কিংবা সদর দপ্তর হত তাহলে নিশ্চয়ই এই কৃতিত্বপূর্ণ প্রতিভাবাণ শিক্ষার্থীর নাম সেখানেই উঠে যেত। এই ব্যাপারে কোন সন্দেহ ছিল না। শুধু এখানে তাই নয়, ঢাবির CSE বিভাগের ২০ বছরের ইতিহাসে এর আগে কোন ছাত্রী ১ম শ্রেণীতে ১ম হয়নি। এখন এখানে শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নই অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে প্রতিযোগীতা করলেও হয়ত তিনি (আনা ফারিহা) ১ম স্থানেই থাকবেন বলে মনে করি।

 এই আনন্দ শিক্ষামূলক প্রতিবেদনটি ০৮/০৩/২০১২ ইং তারিখে জনপ্রিয় দৈনিক প্রথমআলো  পত্রিকাতে পাবলিশ করা হয়। পাবলিশটি নিম্নরুপ-

 উক্ত প্রতিবেদনটি প্রথম আলোতে সরাসরি দেখতে এইখানে ক্লিক করুন – http://adf.ly/66xqz  সেই সাথে দেশ-বিশেদের অসংখ্যা পাঠকের ফারিয়া সম্পর্কে অভিবাদন জানানো মন্তব্যগুলো দেখতে পারবেন।

সর্বশেষ কথাঃ

প্রতিবেদনে উল্লেখ রয়েছে তিনি কুষ্টিয়াতে লেখাপড়ে করেছেন। এই হিসাবে আমরা ধরে নিতেপারি তিনি কুষ্টিয়া জেলার স্থায়ী বাসিন্দা। এখানে ইতিমধ্য কুষ্টিয়া জেলারবিশিষ্ট নাগরিক সমাজ সহ সকলেই উক্ত সাফল্যের খবর শুনে খুবই আনান্দিত। হয়তদেখা যেতে পারে কুষ্টিয়াবাসী তার জন্য কোন নিদিষ্ট দিন উপলক্ষে সংবর্ধনারআয়োজন করতে পারেন। এবং সেটাই যেন হয় তা আমরাও কামনা করি।এই অবিস্মরনীয়কৃতিত্বের আনন্দটা শুধু কুষ্টিয়া জেলা বাসীর নয় বরং সমগ্র দেশবাসীর। কারনতিনি তো আমাদেরই মেয়ে, আমাদেরই বোন তাই না! তাই সমগ্র দেশের প্রতিটিঅঞ্চলেরই গর্ব।ফারিয়া আপার এই অবিস্মরনীয় সাফল্যেবর্তমান তরুণী সমাজ ও শিক্ষার্থীদের কাছে এক অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত যা আধুনিক ওডিজিটাল মডেল বলেই অভিহিত করা যায়। তাছাড়া এখানে শুধু তরুণী/নারী সমাজ বলেএকচেটিয়া কথা নই। তরুন ভাইয়েরাও আদর্শ শিক্ষার নেবার এক অনুকরন দৃষ্টান্তপেতে পারেন ও অনুসরনে সহায়ক হবে বলে মনে করি।

 যাইহোক এই অবিস্মরনীয় সাফল্যের জন্য আমি ও আমার বন্ধুরা (Campus Friends Blogger Team) টেক টুইটস এর পক্ষ থেকে আনা- ফারিয়া আপাকে আন্তরিক অভিনন্দন ও লালগোলাপের শুভেচ্ছা । এবং সেই সাথে ফারিয়া আপার পরিবার-পরিজন, CSE বিভাগের সকল শিক্ষকগণ ও শিক্ষার্থীদেরকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপণ করছি

 পরিশেষে আপু আপনার বাকিটা জীবন সুস্থ-সুন্দর ও আরো সপ্নময় হয়ে উঠুক ওআপনার মনের যাবতীয় সৎ পরিকল্পনা, আশা-ভরসা যেন খোদা-তায়ালা পরিপূর্ণ করে দেন। এবং সেই সাথে আপনার মতো আমাদের দেশের মেয়েরা এগিয়ে যাক এই প্রার্থনা করি।

 ================================================

With Thanks

Campus Friends Blogger Team

6100


মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

এএমডি. আব্দুল্লাহ্

এএমডি. আব্দুল্লাহ্

BD.PoisaClick -অনলাইন আয়ের ব্লগিং পাঠশালা! বিস্তারিত জানতে লগইন করুন- http://bd.poisaclick.com/

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/uncategorized/achana-pathik/22005

4 comments

Skip to comment form

  1. ঐ ছেলেটি
    jakir

    অসাধারন। আপনাকে ধন্যবাদ আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য

    1. এএমডি. আব্দুল্লাহ্
      Moriom

      Thanks for Comment.

  2. মুক্ত বিহঙ্গ (রিজভী)

    দারুন খবর জানানোর জন্য ধন্যবাদ…………

    1. এএমডি. আব্দুল্লাহ্
      Moriom

      Thanks.

মন্তব্য করুন