«

»

Nazrul

স্পাইডারম্যানের মতো দেয়াল বাইবে মানুষ!

স্পাইডারম্যান ছবির কথা নিশ্চয়ই আপনাদের মনে আছে। কিভাবে সে বিশাল বাড়ির দেয়াল বেয়ে তরতর করে উঠে যেত একেবারে উপরে। একজন সাধারণ মানুষের পক্ষে তা কি সম্ভব! বিজ্ঞান বলছে কেন নয়? ঘরের ভেতর আমরা প্রায়ই টিকটিকি দেখি। মসৃণ দেয়াল বেয়ে কিভাবে সে ঘুরে বেড়াচ্ছে, দেয়ালের এককোণ থেকে আরেক কোণে ছুটে যাচ্ছে, কিন্তু পড়ে যাচ্ছে না। আবার মৌমাছি কিংবা পোকামাকড়ও দেয়াল বেয়ে চলাফেরা করতে পারে। কিন্তু কখনো পড়ে যায় না। এর রহস্য কী? এটা জানতে বিশ্বের বহু বিজ্ঞানী দিনের পর দিন গবেষণা চালিয়ে গেছেন। বিজ্ঞানীদের মতে, অনেক পোকামাকড়ের শরীর থেকে এক ধরনের রস বের হয়, যা তাদের মসৃণ দেয়াল কিংবা কাচের ওপর আটকে রাখতে সাহায্য করে। সবার বেলায় অবশ্য এমনটা হয় না। বিশেষ করে টিকটিকির বেলায় এটি বেশ আশ্চর্যজনকও বটে। জার্মানির কিল শহরের ক্রিশ্চিয়ান আলব্রেখট ইউনিভার্সিটির জিওলজিক্যাল ইনস্টিটিউটে টিকটিকি নিয়ে গবেষণা করে এসেছেন প্রাণিবিজ্ঞানী স্টানিস্লাভ গরব। গুবরে পোকা, মাকড়সা এবং টিকটিকি কিভাবে দেয়ালে শক্তভাবে আটকে থাকে এবং সহজে চলাফেরা করতে পারে তা তিনি উদ্ঘাটন করেছেন বলে দাবি করেন। গবেষকরা ইলেকট্রনিক মাইক্রোস্কোপ ব্যবহার করে দেখতে পান, টিকটিকির পায়ের তালুর চামড়ার নিচে রয়েছে হাজারও কুঁচকানো ভাঁজ। সেই ভাঁজের মধ্যে রয়েছে কোটি কোটি লোমের গুচ্ছ। লক্ষাধিক লোমের সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে একেকটি। এর নাম ‘সিটেই’। একেকটি ‘সিটেই’ ২০০ ন্যানোমিটার পুরু এবং মাথাটা চ্যাপ্টা। এগুলো একমাত্র ইলেকট্রনিক মাইক্রোস্কোপেই দেখা যায়। পর্যবেক্ষণে আরও দেখা গেছে, এসব ‘সিটেই’ যখন দেয়াল কিংবা মসৃণ কাচে নিজেদের সংস্পর্শে আসে তখন সাময়িক জোড়া লেগে যায়। পদার্থবিদ্যায় একে বলা হয়, ‘ভ্যান ডার ওয়ালস ইন্টারেকশন’। লাখ লাখ তন্তু শক্তিই প্রাণীটিকে মসৃণ দেয়াল থেকে আলাদা করতে বাধা দেয়। ফলে সে পড়ে যায় না। টিকটিকি আর পোকার পায়ের গঠন নিয়ে গবেষণা করতে গিয়ে বিজ্ঞানীরা অবাক হয়েছেন এ জন্য যে, তারা দেখেছেন কী করে দুটি আলাদা বিজ্ঞান শাখা এক হয়ে যায়। জীববিজ্ঞান মিশে গেছে পদার্থ বিজ্ঞানে। এই সূত্র অনুসরণ করে বিজ্ঞানী স্টানিস্লাভ গরব ও তার দল এক নতুন ধরনের টেপ আবিষ্কার করেছেন, যার নাম দেওয়া হয়েছে গেকো টেপ। এই নতুন টেপ কাচের ওপর এমন শক্ত হয়ে আটকে থাকে, যা অনেক বেশি ওজনকে সহজে ধরে রাখতে পারে। টেপটি সরিয়ে নেওয়ার পর কাচের উপর আর কোনো ছাপ থাকে না। ঠিক যেমনটি টিকটিকি কিংবা পোকামাকড় ছাপ ফেলে না সেরকমই ঘটে। বিজ্ঞানী গরব নতুন এ টেপ নিয়ে কাজ করছেন জার্মানির ইলমেনাউ শহরের টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে। তারা একটি ছোট রোবটে এই টেপ ব্যবহার করে দেখেছেন সেটি সহজেই কাচের উপরে চলাফেরা করছে। বিজ্ঞানীরা আপাতত এই টেপকে রোবটের পায়ে পরিয়ে বড় আকারে সোলার প্যানেল পরিষ্কার করাতে চাইছেন। সুউচ্চ আবাসনে একইভাবে গেকো রোবট দিয়ে বাইরের দিকটা পরিষ্কার করাও শুরু হয়েছে। তবে সবচেয়ে বড় বিস্ময়, যদি এই টেপ মানুষের জুতায় পরানো সম্ভব হয় তাহলে ভবিষ্যতে সিনেমার পর্দায় ‘স্পাইডারম্যান’ দেখে কেউ আর আশ্চর্য হবে না। জলজ্যান্ত মানুষকেই দেয়াল বেয়ে উপরে উঠতে দেখা যাবে।…… Source Internet

এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

ঘুমান ভালো কথা তবে পা নাচাবেন্‌না..
মাথা ঘুরিয়ে দেবার মত কিছু কনসেপ্ট ডিজাইনঃ পর্ব- ভবিষ্যতের গাড়ি
ওয়েবে সাধারন জ্ঞানের তথ্যঃ
খাবারের স্বাদ কম্পিউটার বা স্মার্টফোনে
ফেসবুক লাইক | ফলোয়ার | ফ্যানপেজ লাইক পাওার ৩ টা দ্রুত এবং ভাল সাইট !!!!
চলুন দেখে আসি সাম্প্রতিক বিশ্বের সব নিউজ পাওয়ার জন্য জনপ্রিয় ৫ টি আন্ড্রইয়েড অ্যাপলিকেশন!
আজ থেকে আপনার COMPUTER এর যে কোনো ফাইল Copy-Past করুন আরও দ্রুত।

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

Nazrul

Nazrul

Md. Nazrul Islam Bsc. DUET (Electrical) (Diploma Gutter BAFA) (Mashinist German TTC) Businessman

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/science-tech/nazrul/14298

মন্তব্য করুন