«

»

Nazrul

প্লাস্টিক মানব

ফ্যাক্টস

* যিশুখ্রস্টের জন্মের আট শ বছর আগে অস্ত্রোপচারের আরো অনেক পদ্ধতির সঙ্গে ভারতে প্লাস্টিক সার্জারি চালু করেন পণ্ডিত শুশ্রুতা। তিনি যে বই লেখেন, তা অনেক পরে অনূদিত হয় আরবিতে। ভাষান্তরিত হয়ে এটি ইতালিতে যাওয়ার পর প্লাস্টিক সার্জারির সঙ্গে পরিচিত হয় ইউরোপীয়রা।
* রেনেসাঁর সময় নরসুন্দরের দোকানে অহরহ প্লাস্টিক সার্জারি করার চল ছিল।
* ‘অতিরিক্ত কদাকার’ সৈনিকদের সুপুরুষ বানাতে প্লাস্টিক সার্জারি করা হতো নাৎসি বাহিনীতে। ছোটখাটো দৈহিক খুঁত সারাতে একই পদ্ধতির আশ্রয় নিত মুসোলিনির বাহিনীও।
* মিস ওয়ার্ল্ডের মতো কৃত্রিম সৌন্দর্যেরও আসর বসে হাঙ্গেরিতে। ‘মিস প্লাস্টিক’ নামের এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের পূর্বশর্ত হলো প্রতিযোগীর অন্তত একটি প্লাস্টিক সার্জারি থাকতে হবে।
* প্লাস্টিক সার্জারির প্রতি মানুষের এত আগ্রহ কেন? তাহলে শুনুন সেই ঘটনা। কেবল পছন্দের একটি জুতা পরতে পারার জন্য পায়ের আকার পরিবর্তন করে ফেলেছিলেন এক ব্রিটিশ নারী। শুধু তা-ই নয়, অস্ত্রোপচার বিনা পয়সায় করানোর জন্য গোড়ালি ব্যথার আশ্চর্য এক গল্পও ফেঁদেছিলেন তিনি।

প্লাস্টিক মানব

পছন্দের হিরোর মতো নিজেকে সাজানোর জন্য বা নিজের চেহারার খুঁতগুলো ঢেকে দেওয়ার জন্য প্লাস্টিক সার্জারির আশ্রয় নেয় অনেকেই। তবে লোভের বসে এ কাজে সীমা ছাড়ালেই বাধে গোল। কখনো সুন্দরের বদলে চেহারা হয় কিম্ভূতকিমাকার। আজব কিছু প্লাস্টিক মানবের গল্প প্লাস্টিক সার্জারি করে উচ্চতা বাড়ানোর কোনো উপায় থাকলে হয়তো জীবনে আর কিছুই চাইতেন না হার্বার্ট শাভেজ। সুপারম্যানের অতিমানবীয় কার্যকলাপের প্রেমে পড়ে জীবনে কী করেননি তিনি! মুখোশ, পুতুল, ছবি, পোশাক, কমিকস_সুপারম্যানের সামান্যতম ছোঁয়াও আছে এমন হাজারখানেক জিনিসে বোঝাই করে ফেলেছেন ঘর। তবে এই কাণ্ডের শুরু আজ থেকে ১৬ বছর আগে, যখন তাঁর মনে হলো, চেহারাসুরতও সুপারম্যান-সদৃশ হওয়া চাই। এর পর থেকে মুখমণ্ডল তো বটেই, পারলে পুরো শরীরটাই তিনি সঁপে দেন শল্যবিদের ছুরির নিচে। ঠোঁট, চিবুক, গাল, উদর, ঊরু_সব কিছুই পরিবর্তন করেছেন তিনি। তবে আটকে গেছেন এক জায়গায় এসে! সুপারম্যানের দশাসই শরীরের বিপরীতে তাঁর উচ্চতা মাত্র সাড়ে পাঁচ ফুট। আট-নয় ইঞ্চির কমতি পড়ে যাওয়ায় শাভেজের দুঃখের শেষ নেই। এভাবে প্রিয় তারকা বা চরিত্রের প্রতি বাড়াবাড়ি আকর্ষণের ফাঁদে পড়ে অনেকেই নিজের ঈশ্বরদত্ত চেহারাটা খুইয়েছেন। বারবার কাটাছেঁড়ার পর পরিণত হয়েছেন প্লাস্টিক মানবে।
ব্যাটম্যান সিরিজের খলচরিত্র ক্যাটম্যানের সঙ্গে পরিচয় আছে অনেকের। তবে বিকটদর্শন চেহারায় এই কমিক চরিত্রকেও হার মানিয়েছেন বাস্তবের ক্যাটম্যান ডেভিড আভনার। অনেকের কাছে তিনি হিউম্যান টাইগার নামেও পরিচিত। অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে যে হঠাৎ দর্শনে মর্ত্যলোকের কোনো মানুষ ভাবতে কষ্ট হবে ডেভিডকে। অথচ স্যান ডিয়েগোর কলেজছাত্র ডেভিড ছিলেন আর দশটা সাধারণ তরুণের মতোই। এক উপজাতীয় ধর্মগুরুর সঙ্গে কথা বলার পরই রাতারাতি পাল্টে যায় তাঁর জীবনদর্শন। বাঘের মতো জীবন গড়তে গিয়ে ঠোঁট, কান, গাল, কপালে করিয়েছেন প্লাস্টিক সার্জারি। সারা মুখ ঢেকে গেছে উল্কিতে, মুখের বিভিন্ন জায়গায় পরেছেন অলংকার। দাঁত উপড়ে ফেলে সেখানে লাগিয়েছেন তীক্ষ্ন শ্বদন্ত। এগুলোর পেছনে বস্তা বস্তা টাকা ঢেলে বিনিময়ে কী পেয়েছেন ডেভিড? কয়েকটা টিভি শোতে গিয়ে বিখ্যাত হয়েছেন। আবার চেহারায় সবচেয়ে বেশি স্থায়ী পরিবর্তন করে কেউ কেউ ঠাঁই পেয়েছেন গিনেস বুকে।
খোলনলচে বদলে চেহারা চটকদার বানাতে গিয়ে উল্টোটা করে ফেলার নজিরও কম নেই। ১৯৪০ সালে যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম নেওয়া জোকেলিন ওয়াল্ডেস্টেইন বাহ্যিকভাবে মোটেই খারাপ ছিলেন না। কিন্তু দুই মিলিয়ন ডলার ব্যয় করে ৩০ বছরে চেহারার যে হাল করেছেন, জোকেলিনকে এখন একটা বিকটদর্শন পুতুলের মতো দেখায়। একেকবার সার্জারির ভুল ঢাকতে গিয়ে পরেরবার যা করেছেন, তাতে চেহারা হয়েছে আরো ভয়াবহ। নিজে হয়েছেন সমালোচিত, পুরো মার্কিন মুলুকে রটে গেছে দুর্নাম। তার ওপর আবার ২০০৪ সালে জুটেছে বিশ্বের কুৎসিততম সেলিব্রিটির খেতাব।অস্ত্রোপচার নিয়ে অল্পবিস্তর
শল্যচিকিৎসকরাও কম যান না। প্লাস্টিক সার্জারির হরেক নতুন তরিকা আবিষ্কার করে চটকদার বিজ্ঞাপনে মানুষের লোভ বাড়িয়ে দেন। ব্যায়ামবীরের শরীরে সিঙ্-প্যাক দেখে যারা দীর্ঘশ্বাস ফেলে, গাঁটের পয়সা খরচ করতে রাজি থাকলে মাত্র দুই ঘণ্টায় সেটা তৈরি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেন তাঁরা। তবে কয়েক দিন তীব্র ব্যথা সহ্য করার ক্ষমতা প্লাস্টিক সার্জারির পূর্বশর্ত। মাত্র পাঁচ হাজার ডলারের মধ্যেই সারা যাবে এটি।
* কিংবদন্তির চরিত্রের মতো চোখা কান তৈরি করে দেওয়ার উপায় আবিষ্কার করেছেন নিউ ইয়র্কের ডা. লাজোস ন্যাগি। তিনি হাঙ্গেরিতে প্রথম এই অস্ত্রোপচারের নিরীক্ষা চালান। দেখতে সুন্দর করার সঙ্গে সঙ্গে এটি নাকি গান শোনার অভিজ্ঞতায়ও নতুন মাত্রা যোগ করে।
* শিং চাই, শিং? শল্যচিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করে দেখতে পারেন। ত্বকের ভেতর ধাতব পাত ঢুকিয়ে যেকোনো অংশ স্ফীত করা সম্ভব। কপালের দুই পাশে শিং গজিয়ে বিপদে পড়াও অসম্ভব নয়। কেননা এই অস্ত্রোপচারের ঝুঁকিও রয়েছে অনেক।
* শুধু নিজেকে না বসিয়ে ছুরির নিচে বসাতে পারেন আপনার পোষা প্রাণীটিকেও। প্লাস্টিক সার্জারি এখন মানবীয় সীমা ছাড়িয়ে পশুজগতেও হাত বাড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ইউরোপে দিন দিন এর চাহিদা বেড়েই চলেছে। মাঝেমধ্যে পশুপ্রেমীরা একটু বাগড়া দিতে পারেন, এই যা!
রেকর্ডধারী
৫২টি অস্ত্রোপচারের ধকল সয়ে সর্বোচ্চ প্লাস্টিক সার্জারির রেকর্ড গড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সিন্ডি জ্যাকসন। ২০০০ সালে এই স্বীকৃতি মেলে তাঁর এবং গিনেস বুক অনুযায়ী রেকর্ডটিতে এখনো কেউ ভাগ বসাতে পারেনি। ৫৫ বছর বয়সী এই গায়িকা স্রেফ চেহারার জেল্লা বাড়াতে এবং বয়স ধরে রাখতে এতবার সার্জারির কষ্ট সয়েছেন। ১৯৮৮ সালে শুরু করার পর এটি তাঁর নেশা হয়ে গেছে। বহুদিনের অভিজ্ঞতায় এখন তিনি অন্যদের পরামর্শদাতা হিসেবেও কাজ করেন।…. Source Internet



এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

এমআইটি মুড মিটার: মুখ দেখেই মেজাজ পরিমাপ করা যাবে !!!
স্বর্ণানুপাত বা গোল্ডেন রেশিও !
মহাকাশে পর্যটক ও তাদের অবস্থান
ম্যাক্সিকোর পুলিশের ক্যামেরায় ধরা পড়ল ‘ভূত’….(ভিডিওসহ)
চলুন দেখে আসি ভিডিও কল ও চ্যাটের জন্য জনপ্রিয় কিছু এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন!
Buymobile এর ভেলেন্টাইন অফার
রুট ছাড়াই গেম হ্যাক সাথে অ্যাপ পারচেজ

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

Nazrul

Nazrul

Md. Nazrul Islam Bsc. DUET (Electrical) (Diploma Gutter BAFA) (Mashinist German TTC) Businessman

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/science-tech/nazrul/14281

1 comment

  1. Mortoza KONOK
    GM KONOK

    sundor bapar to….asolei ai manob kul dorlkar

মন্তব্য করুন