«

»

স্যার আইজ্যাক নিউটন – যিনি চমকে দিয়েছেন পুরো বিজ্ঞান জগতকে

পৃথিবীতে অনেক মানুষই জন্ম গ্রহন করে, অল্প কিছু মানুষই নিজেদের পদার্পনের চাপ রেখে যায়। তাদের প্রতিভা দিয়ে জয় করে পৃথিবী।  কারো কারো পায়ের চাপ কিছু দিনের মধ্যেই পৃথিবী বাসী ভুলে যায়, কিন্তু কারো কারো অবদান ভুলার নয়। তেমনি এক জন হচ্ছে স্যার আইজ্যাক নিউটন।  যার জ্ঞান, বুদ্ধি, প্রতিভা, দক্ষতা আর অভূতপূর্ন  ক্ষমতা দিয়ে চমকে দিয়ে গেছেন পুরো বিজ্ঞান জগতকে।

স্যার আইজ্যাক নিউটনের আলোকচিত্র

গাছ থেকে আপেল নিচের দিকে পড়ে, কেন পড়ে এ টা খুঁজতে গিয়েই প্রথম সর্বজনীন মহাকর্ষ বলের সূত্র আবিস্কার করেন। এখন ক্লাস এইট বা আরো ছোট ক্লাসের একটি ছাত্রকে যদি জিজ্ঞেস করে উপর থেকে একটি বস্তু নিচের দিকে কেন পড়ে? সে তাৎক্ষনিক ভাবে জবাব দিবে মহাকর্ষের জন্য। কিন্তু যখন মানুষ প্রকৃতির সাথে যুদ্ধ করে বেছে থাকে তখন উপর থেকে কোন বস্তু পড়বে তা আবার কেন পড়বে তা নিয়ে ভাববে কে? হ্যাঁ অবশ্যই এক জন ভাবছেন আর তিনি হলেন স্যার আইজ্যাক নিউটন। বিজ্ঞানের এমন কোন শাখানেই যেখানে তিনি বিচরন করেননি। তিনি এক সাথে পদার্থবিজ্ঞানী, গণিতবিদ, জ্যোতির্বিজ্ঞানী, প্রাকৃতিক দার্শনিক, আলকেমিস্ট ইত্যাদি। আবিস্কার করেছেন ক্যালকুলাসের মত গণিতের এক বিশাল শাখা।

বিজ্ঞান বিভাগে যারা পড়ে আসছেন তারা নিউটনের গতির তিনটি সূত্রের সাথে খুব ভাল ভাবেই পরিচিত। সূত্র তিনটি হচ্ছেঃ

  • প্রথম সূত্রঃ ব্যাহিক কোন বল প্রয়োগ না করলে স্থির বস্তু চিরকাল স্থিরই থাকবে এবং গতিশীল বস্তু সুষম গতিতে সরল পথে চলতে থাকবে।

প্রথম সূত্রের উদাহরন

  • দ্বিতীয় সূত্রঃ বস্তুর ভর বেগের পরিবর্তনের হার প্রযুক্ত বলের সমানুপাতিক এবং  বল যে দিকে ক্রিয়া করবে বস্তুর ভর বেগের পরিবর্তনের হার সে দিকে ঘটবে।

কার্টুনে দ্বিতীয় সূত্র 😛

  • তৃতীয় সূত্রঃ প্রত্যেক ক্রিয়ার ই একটা সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া রয়েছে।

তৃতীয় সূত্রের উদাহরন

 

তৃতীয় সূত্র আপনারা সবাই নিয়মিত ব্যবহার করেন, যেমন কেউ আপনাকে একটা ছিমটি দিল, আপনি তাকে একটা ঘুষি দিলেন 😛 যদি ও এখানে একটু সূত্রে বরখেলাপ হয়। আবার বলেন একটা দিয়ে দেখ না তোর কি হাল করি দেখবি। মানে আগেই সূত্র প্রয়োগ করে বসে আছে। কিন্তু তৃতীয় সূত্রের ভালো একটি উদাহরন হচ্ছে রকেট উড্ডয়ন।  আর গতির এ সব সূত্র কাজে লাগিয়েই সমাধান করা হয়েছে অনেক কঠিন কঠিন সমস্যা। যার কৃতিত্ত্ব নিউটনের।

স্যার আইজ্যাক নিউটন সম্পর্কে উইকিপিডিয়ায় যে তথ্য রয়েছে, জানার জন্য তাই যথেষ্ট। বাংলার জন্য এখানে ক্লিক করুন। আর ইংরেজীর জন্য এখানে। পড়লে জানতে পারবেন আজ জানার মধ্যে রয়েছে অনেক তৃপ্তি। আমার সীমিত জ্ঞান দিয়ে উইকিপিডিয়া থেকে ভালো লিখতে পারব না। কারন উইকিপিডিয়ার তথ্য গুলো অনেকের সাহায্য দিয়ে তৈরি।  তাই আমি আর লিখছি না। তবে সবাইকে ইংরেজীতে না পারলে ও অন্তত বাংলা টা পড়ে আসার জন্য অনুরোধ করছি।

নিউটনের বিখ্যাত একটি বই হচ্ছে ফিলোসফিয়া ন্যাচারালিস প্রিন্সিপিয়া ম্যাথামেটিকা 1687 সালে প্রকাশিত এ বইটি আপনি যদি পড়তে চান তাহলে ডাউনলোড করে পড়তে পারেন। ডাউনলোড লিঙ্ক।

ধন্যবাদ সবাইকে।


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

জ্বরের গল্প!!
সহজ কিন্তু দরকারি কিছু সার্কিট। (সিরিয়াল টুইট) - ১
রহস্যময় বারমুডা ট্রায়াঙ্গল...........
প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখুন এবং চাকুরি করুন
ছোট্ট কম্পিউটার ‘এডিসন’
***এক সিমেই ব্যবহার করুন দুই নাম্বার, তাও আবার ২য় নাম্বারটি হবে বিদেশি স্টাইলের***
নিয়ে নিন আপনার নিজের নামে ১০০% বাংলাদেশী/US/others address ভেরিফ্যাই paypal accounts (সাথে পাচ্ছেন ১...

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

জাকির হোসাইন

প্রোগ্রামিং বা ফ্রীল্যান্সিং নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকলে টেকটুইটস সাহায্য বিভাগে পোস্ট দিতে পারেন অথবা আমাকে ফেসবুকে মেসেজ দিতে পারেন।

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/science-tech/jakirbdl/6478

7 comments

Skip to comment form

  1. সায়েম

    tini ‘halir dhumketo’ discover korechen. Eita arekto detail jene add kore den. Mojar jinis…
    Banglay comment likhte na parar jonno sorry 🙁

  2. তাহের চৌধুরী (সুমন)
    Taher Chowdhury Sumon

    আমি আপেল পাইলে তো আগে খাইয়া লইতাম পরে রিসার্ছ করতাম।

  3. md.rifat hossain

    অনেক ভাল হইসে। ধন্যবাদ জাকির ভাই।

  4. MNUWORLD

    ওনার সম্পর্কে বলার জন্য ধন্যবাদ জাকির ভাই।

  5. Munim
    Munim

    very nice tweet

  6. NeilPlusAkash

    সুন্দর পোষ্ট

  7. solaiman47

    Thank you for giving Book.

মন্তব্য করুন