«

»

আমরা একাকি নই…..এলিএন(পর্ব- 3 নিরো)

 

একটা লেজার রশ্মির ঘরে আমাকে আটক করা হল।লেজার রশ্মির চেইন দিয়ে আমার হাত পা বাধা ,আমি চুপচাপ বসে আছি তাদের তৈরি হলোগ্রাফিক চেয়ারে,ঘরটা সম্পুন্ন লেজার রশ্মির দিয়ে তৈরি।

 

 

ঘরের মাঝ খানে আমি হলোগ্রাফিক চেয়ারে বসে আছি।

 

 

বুঝলাম এটা ভাষা ট্রান্সলেটর রুম।একটু আগে যখন তাদের কথা বার্তা বুঝতে পারছিলাম না, আর এখন ঠিকই তাদের ভাষা বুঝতে পারছি।কিছুক্ষন এর মাঝেই কয়েকজন লোহার পোশাকধারি লেজার রুমের কাছে এল।আমার বেচেঁ থাকাতে ওদের খুব রহস্য জনক বলে মনে হল,আমাকে তারা চেয়ে চেয়ে ভাল করে দেখল,বিশেষ করে তাদের দলপতি আমাকে বেশ ঘুরে ঘুরে দেখছে।

 

———–কি নাম তোমার ? ‍দেখ আমরা কিন্তু খুব ই ভয়ানক না।আমরা তোমাকে মারবো না । [এক নিঃশ্বাস এ কথাগুলো শেষ করল তাদের দলপতি ভাষা ট্রান্সলেটর রুম ছাড়া হয়ত আমি  তাদের কথা বুঝতে পারতাম না]

———তোমরা কি চাও ? আমাকে ছেড়ে দা্ও।

———–তোমার পরিচয় দাও। কোথা থেকে তুমি এসেছো ?

[কোন জবাব না করে তাদের বলতে লাগলাম আমার পরিচয়]

———আমি নিরো

 

——–আমি 10 বছর ধরে এই অন্ধাকার গ্রহে বাস করি, বিধংস্ব শসার থেকে আমি বেচে গেছিলাম,শত্রু পক্ষ আমাদের শসার ধংস্ব করে দিয়েছিল,আমার পরিবার্ এর মধ্যে আমি ই একমাত্র বেচে আছি,আর কি জানতে চান?

————তোমাদের শসার কেন ধংস্ব হয়ে ছিল ?

——আমি জানি না,তবে কেন ধংস্ব হয়ে ছিল আমার বাবা ই ভাল  জানতেন,কিন্তু আমি,আমার বাবা সহ আমার পরিবার কে হারিয়ে ফেলেছি।কিন্তু আপনারা কে?কেন আমাকে বেধে রেথেছেন?

———-আমরা আমাদের পরিচয় দিতে চাই না,

তবে যেন রাখ, আমরা এই ইউনির্ভাস এর সবচেয়ে খারাপ গ্রহ থেকে এসেছি।

[মনে মনে ভাবলাম হয়ত এরাই তারা, বা এরা কে ?]

[আর আমাকে বেধে রাখার রহস্য টা কি ,তাহলে এই অন্ধকার গ্রহের আমরা কেই না]

—————-আমরা আর ঘন্টা খানেক পরে আসব।

[ওরা চলে গেল]

 

[আমাকে এখান থেকে বের হতে হবেই, ‌আমার ইন্দ্রিয় শক্তি কে জাগ্রত করার চেষ্টা করলাম,আমার প্রিয় রোবট রক্সিল এর সাথে ইন্দ্রিয় যোগাযোগ করার চেষ্টা করলাম,রক্সিল কে জানিয়ে দিলাম যে আমি খুব বড় বিপদে আছি,রক্সিল সেই বিধংস্ব শসার থেকে বেচে যাওয়া ই এক মাত্র রোবট,

 

রক্সিল খুবই বুদ্ধিমান,রক্সিল আমাকে সংকেত ‍দিল যে সে কিছুক্ষনের মাঝেই এখানে চলে আসবে,আমি হলোগ্রাফিক চেয়ারে বসে বসে ভাবছি,

হঠাৎ কোথা থেকে যেন একটা কথা ভেসে এল]

————–সার এখানে যাকে বন্দি করা হয়েছিল, সে তার ইন্দিয় শক্তি দিয়ে কারো সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে।

 

[কিছুক্ষন পর]

…………………………………………..চলবে

 


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

জামিল হোসাইন সিজান

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/science-fiction/zamil555/8037

10 comments

Skip to comment form

  1. champ

    বিশ্বাস করবেন কিনা জানিনা আমি টেকটুইটের নিয়মিত ভিজিটর ছিলাম না কয়েক দিন আগেও কিন্তু , এখন আমি প্রতিদিন টেকটুইট ভিজিট করি একমাত্র আপনার লেখা গল্পটি পড়ার জন্য ।

    1. জামিল হোসাইন সিজান

      ধন্যবাদ..

  2. জি এম পারভেজ ;-)

    চলুক। আসলে টেকটুইটসে নতুন পোষ্টের বড়ই অভাব । তাই নতুনভিজিটর কম (আসে)। আসলেও কমেন্ট করেননা । @ লেখক , লেখা বাড়ান….

    1. জামিল হোসাইন সিজান

      নতুনভিজিটর আসবেই

  3. MNUWORLD

    হুম ভাল হচ্ছে চালিয়ে যান।

    1. জামিল হোসাইন সিজান

      ধন্যবাদ..চালিয়ে যাচ্ছি

  4. তাওহিদুল ইসলাম

    এভাবে একটু করে না দিয়ে পুরাটুকু লিখুন আর না হয় পিডিএফ লিংক দিন। এতে ভিজিটর বিব্রত হয়।

  5. champ

    Where is Part 4 ?

  6. জি এম পারভেজ@liTu

    প্রতিদিন তো আসার কথা …
    আসছে না কেন?.?.?

    হরতালজট নাকি ?

  7. Anik92

    সবগুলো পর্বই অনেক সুন্দর হয়েছে

মন্তব্য করুন