«

»

আকাশে যাচ্ছে আমাদের স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১

বিদেশী স্যাটেলাইটের পরিবর্তে খুব শিগগিরই বাংলাদেশী স্যাটেলাইট ব্যবহার করার পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি। বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপণে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা সংস্থানের আবেদন জানানো হয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়নে একটি স্বতন্ত্র কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব দিয়ে বিকল্প তিনটি প্রস্তাব সমন্বিত একটি চিঠি ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর জন্য স্থানীয় পর্যায়ে তিন জন পরামর্শ নিয়োগের উদ্যোগ নিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন। জানা গেছে, প্রকল্পের পরামর্শক বিটিআরসির তত্ত্বাবধানে পরামর্শক বিষয়ক প্রকল্প কার্যালয়ে কাজ করছেন বিদেশী পরামর্শক দলের ২৫ জন এবং বাংলাদেশের ছয় জন। চুক্তি স্বাক্ষরের সময় থেকে তিন বছর পর্যন্ত কাজ করবে এসপিআই। সূত্রমতে, স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে নিয়োজিত অর্থ, উৎক্ষেপণ পরবর্তী পাঁচ বছরের মধ্যে উঠে আসবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। আর সে লক্ষেই প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহ করতে সুনির্দিষ্ট তিনটি খাত উল্লেখ করে বিকল্প তিনটি প্রস্তাবনা তৈরি করেছে বিটিআরসি। বর্তমানে বাংলাদেশের স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল, ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান, ভি-স্যাট এবং রেডিও গুলো বিদেশী উপগ্রহ ব্যবহার করছে। বিদেশী স্যাটেলাইট ভাড়া বাবদ প্রতি বছর ৬০ লাখ ডলার ভাড়া পরিশোধ করছে তারা। আগামীতে এ ভাড়া বেড়ে দাঁড়াবে ১ কোটি ১০ লাখ থেকে ১ কোটি ৫০ লাখ ডলারে। নিজস্ব স্যাটেলাইট স্থাপন করা হলে এ টাকা দেশেই রাখা সম্ভব হবে। অন্যদিকে স্যাটেলাইটের অব্যবহৃত তরঙ্গ নেপাল, ভুটান, মিয়ানমার, শ্রীলংকাসহ আরও কয়েকটি দেশকে ভাড়া দিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব হবে। পাশাপাশি দুর্যোগ প্রবণ বাংলাদেশে নিরবচ্ছিন্ন টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতেও দারুণ ভূমিকা রাখবে এটি। উল্লেখ্য, বিটিআরসি কর্তৃক ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাব তিনটির প্রথমটিতে সরকারের নিজস্ব উৎস থেকে প্রকল্পের অর্থসংস্থানের ক্ষেত্রে অর্থের যোগান দিতে নিজেদের আগ্রহ প্রকাশ পেয়েছে। দ্বিতীয় প্রস্তাবে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন আর্থিক সংস্থার কাছ থেকে অপেক্ষাকৃত কম সুদে ঋণ (সফট লোন) গ্রহণ এবং সর্বশেষ বিকল্পে সাপ্লায়ার্স ক্রেডিটের আওতায় অর্থ সংগ্রহের প্রস্তাব করা হয়েছে। এদিকে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের জন্য এরই মধ্যে ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) কাছে কক্ষপথের ১০২ ডিগ্রি পূর্বে প্লট চেয়েছে বিটিআরসি। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপণে সম্মতি দিলে বিটিআরসি তাদের কার্যক্রমে হাত দিতে পারবে। এদিকে দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর জন্যে স্থানীয় পর্যায়ে তিন জন পরামর্শক নিয়োগের উদ্যোগ নিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। গত মঙ্গলবার বিটিআরসির ওয়েব সাইটে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি পোস্ট করা হয়। ফ্রিকোয়েন্সি কো-অর্ডিনেশন, স্পেসক্রাফট, স্যাটেলাইট লঞ্চিং ভেহিক্যাল এই তিনটি বিষয়ে পরামর্শক নিয়োগ করা হবে। এ বিষয়ে আগ্রহীদের ২৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আবেদন করতে বলা হয়েছে। স্থানীয় পরামর্শকদের কাজ হবে মার্চ মাসে নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান স্পেস পার্টনারশিপ ইন্টারন্যাশনালকে (এসপিআই) সহায়তা করা। পরামর্শকদের ইলেকট্রিক্যাল/টেলিকম ইঞ্জিনিয়ারিং ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতার পাশাপাশি ১০ বছরের অভিজ্ঞতাও চাওয়া হয়েছে এবং তাদের মাসিক ভাতা দেয়া হবে দেড় লাখ টাকা।


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

পুরনো বাইবেলে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)’র আগমনী বার্তা ; ভ্যাটিক্যানে আলোড়ন(সংগৃহীত)
বাংলাদেশের সেরা ৪ টি সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন কোম্পানি
একটি অ্যাপসের মাধ্যমে দেখুন ১০০ চ্যানেল
অবশেষে প্রকাশ হল অ্যালকাটেল ওয়ানটাচ ফ্ল্যাশ ২ এর দাম
0961389xxxxxx এরকম নাম্বার ব্যবহার করুন এখন আপনিও
টু ইন ওয়ান অফার
Traffic+monsoon এর মতো আর একটা সাইট যেখানে Payment 100% $2 হলে Payza তে।

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

অরন্য নিলয়

নীল আকাশ ছুঁয়ে দিতে ইচ্ছে করে। কিন্তু পড়া লেখা করতে ইচ্ছে করে না :(

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/news/aronno-niloy/32408

মন্তব্য করুন