«

»

notun456

মুঠোফোনের বন্যায় ভাসছে জার্মানরা

mutho-foun

জার্মানরা এ বিষয়ে একমত: মোবাইল টেলিফোন ছাড়া বাঁচা যায় না৷ ৩০ বছর বয়সের নীচে প্রায় প্রত্যেকেরই মোবাইল আছে৷ জার্মানরা যাকে বলেন ‘হ্যান্ডি, অর্থাৎ হাতফোন৷ প্রবীণেরাও ধীরে ধীরে এই ‘হ্যান্ডি’র স্বাদ পাচ্ছেন৷

প্রতি দশজন জার্মানের মধ্যে ক’জনের মুঠোফোন আছে, সেটা প্রশ্ন নয়৷ প্রশ্ন হলো, ক’জনের নেই৷ উত্তর হলো: প্রতি দশজন জার্মানের মধ্যে শুধু একজনের মুঠোফোন নেই৷ দেশের জনসংখ্যা আট কোটির কিছু বেশি৷ তার মধ্যে ছয় কোটি ত্রিশ লাখ মানুষ মুঠোফোন ব্যবহার করেন৷ অর্থাৎ গত দু’বছরে মুঠোফোন ব্যবহারকারীদের সংখ্যা বেড়েছে বিশ লাখ৷ জার্মানির হাইটেক শিল্প সমিতি বিটকম-এর সর্বাধুনিক জরিপে এ সব তথ্য পাওয়া গেছে৷

‘আরো দেখা যাচ্ছে: প্রবণতা স্মার্টফোনের দিকে, অর্থাৎ যে মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট পাওয়া যায়,” বললেন বিটকম-এর মুখপাত্র মার্ক থুইলমান৷ জার্মান নাগরিকদের ৪০ শতাংশ নাকি ইতিমধ্যেই স্মার্টফোনের অধিকারী  এক বছর আগেও যা ছিল ৩৪ শতাংশ৷ আর ২০১৩ সালে এ যাবৎ যত মুঠোফোন বিক্রি হয়েছে তার ৮০ শতাংশই নাকি স্মার্টফোন৷

৬৫ বছরের বেশি বয়সের জার্মানদের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশের মুঠোফোন আছে৷ থুইলমানের ধারণা, প্রবীণদের আধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে ভীতি কিংবা বিতৃষ্ণার কারণেই আরো বেশি বয়োজ্যেষ্ঠ মানুষ মুঠোফোন ব্যবহার করা শুরু করেননি৷ এছাড়া এই বয়সের মানুষজনের মধ্যে একটি ব্যাপকভাবে প্রচলিত ধারণা হলো, মুঠোফোন ব্যবহারের খরচ খুব বেশি৷ ‘‘কিন্তু মুঠোফোন এবং মুঠোফোন থেকে কলের খরচ যে ব্যাপকভাবে কমে গেছে, সেটাও প্রবীণরা একদিন জানতে পারবেন”, বলেন আশাবাদী থুইলমান৷

বিস্তারিত


মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

notun456

notun456

i am a it officer in Dreamland Group

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/mobiles/notun456/47269

মন্তব্য করুন