«

»

Dueza.Com

কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন?

আপনারা হয়তো অনেকেই ভাবতেছেন যে, কেন আকেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন? Blog.Dueza.Comপনি গুগোল এডসেন্স করবেন বা কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন? একটু সময় ব্যায় করে জেনে নিন গুগোল এডসেন্স করার কারণ গুলো।

খুবই সহজে গুগোল এডসেন্সে একাউন্ট খোলা যায়:
অন্য যেকোনো বিজ্ঞাপনদাতার চেয়ে গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া অনেক সহজ। এডসেন্সের জন্য একাউন্ট খোলা এতই সহজ যে আমরাই ওদের নিয়মের তোয়াক্কা করি না আর দোষ দেই যে গুগল এডসেন্সের একাউন্ট খোলা অনেক কঠিন। মনে রাখতে হবে যে, নিয়ম মেনে আবেদন করলেই গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া যায়।

ব্লগের লেখার বিষয়ের উপর বিজ্ঞাপন দেখায়:
আপনার ব্লগটি যেই বিষয়েরই হোক না কেন গুগল ঠিক সেই বিষয়েরই বিজ্ঞাপন দেখাবে। আপনার ব্লগের গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপনে ক্লিক পেতে এই বিষয়টি খুবই জরুরী। আপনার ওজন কমানোর ব্লগে যদি বিজ্ঞাপনদাতা খেলার বিজ্ঞাপন দেখায় তাহলে কি পাঠকেরা আপনার ব্লগের বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবে? না করবে না। এ বিষয়ে গুগল এডসেন্স সবার সেরা।

খুব সহজে পছন্দমতো বিজ্ঞাপন বসানো যায়:
আপনার সাইটের ডিজাইন যেমনই হোক না কেন, নানা রকম সাইজের টেক্সট, ইমেজ কিংবা ভিডিও বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে আপনি রং, ফন্ট পরিবতন করে গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন ঠিকই সাইটের সাথে মানিয়ে নিতে পারবেন।

প্রতি ক্লিকেই টাকা পাওয়া যায়:
অনেক বিজ্ঞাপনদাতা আছে যারা বিজ্ঞাপন দেবার আগে বলে দিবে যে নিদির্ষ্ট কিছু দেশ কিংবা এলাকা থেকে ক্লিক পড়লেই কেবল ক্লিক প্রতি টাকা দেয়া হবে। কিন্তু গুগল এডসেন্সের বেলায় এমনটি কখনো ঘটে না। পাঠক যেকোনো দেশ, যেকোনো অঞ্চল থেকেই হোক না কেন, সঠিকভাবে ক্লিক পড়লেই আপনি ইনকাম পাবেন।ভুলেও আপনি আপনার নিজে বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবেন না কিংবা কাউকে ক্লিক করতে উৎসাহিত করবেন না। তাহলে গুগল আপনার একাউন্ট বন্ধ করে দিবে।

প্রতি ক্লিকে ভালো আয়ের হার পাওয়া যায়:
গুগল এডসেন্সের প্রতি ক্লিকে আয়ের হার অন্য যেকোন বিজ্ঞাপনদাতার আয়ের হারের চেয়ে বেশি হয়ে থাকে। বিষয়ের উপর নির্ভর করে ক্লিকে আয়ের হারও উঠা নামা করে। কিণ্ডু ব্লগিংয়েই তুলনামূলকভাবে আয় বেশি করা যায়

যেকোনো বিষয়েরই উপর বিজ্ঞাপন দেখানো সম্ভব:
খেলাধূলা হোক আর চায়ের ব্লগ হোক, গুগল যেন যেকোনো বিষয়েই বিজ্ঞাপন দেখাতে পারে। তাই এডসেন্স ব্যবহারের সময় এই বিষয়ে কোনো চিন্তা করতে হয় না, কোড বসালেই গুগল বিষয় ভিত্তিক বিজ্ঞাপন দেখায়।

সঠিক সময়ে টাকা পাওয়া যায়:
অনেক বিজ্ঞাপনদাতা আছে যারা প্রতি ৪৫ দিন কিংবা ৬০ দিনে পেমেন্ট করে। কিন্তু প্রতিমাসে ১০০ ডলার / ৬০ পাউন্ড হলেই ৩০ দিন পর গুগল চেক ইস্যু করে। কোনো ধরনের তালবাহানা কিংবা দেরি হয় না।

গুগলের সাথে প্রতারণা না করে নিয়ম মেনে কাজ করলে গুগল এডসেন্স হতে পারে ব্লগ থেকে আয়ের অনন্য উপায়। তবে মনে রাখবেন, ভালো ভাবে শিখতে পারলে গুগল এডসেন্স হতে পারে আপনার জীবনের জন্য একটা সম্পদ

>>>>>টিউন টি পূর্বে Blog.Dueza.Com এ প্রকাশিত<<<<<


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব - ৩] (কারেন্সি পেয়ার, মেজর/ক্রস, ডিরেক্ট/ইন্ডিরেক্ট, পি...
এবার খুব সহজে বাড়িয়ে নিন আপনার বিটকয়েন আয়ের পরিমাণ।
অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট না থাকলেও অ্যাডসেন্স দিয়েই ইনকাম করুন 😀 !! এবং ডাউনলোড বাটন বসিয়েও ইনকাম করুম...
এসে গেল নতুন trafficmonsoon।[না দেখলে ১০০০% মিস]
বিশ্বের ১ নং পিটিসি সাইট Clixsense সম্পর্কে A-Z রিভিউ! কাজের প্রক্রিয়া হতে শুরু করে ইনকাম বিষয়ে সাত ...
0961389xxxxxx এরকম নাম্বার ব্যবহার করুন এখন আপনিও
বাংলাদেশ থেকে অনলাইনে আয় করার উপায়, পর্ব – দুই

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

Dueza.Com

Dueza.Com

CEO of Dueza http://dueza.com/

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/freelancing/dueza-com/24133

2 comments

  1. Real Story

    sob e thik ase mama, tobe adsense approve pawa kothan… 😀 …g mama g.

মন্তব্য করুন