«

»

বিডি টিউটোরিয়াল গিফট

আসুন ঝটপটভাবে এলার্টপে একাউন্ট তৈরি করে নিই A-Z! ও আলোচনার ব্যবহার কৌশল (২য়/শেষ পর্ব)!!

৭৮৬

আসসাসলামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভাল আছেন। শুরু করছি  এলার্টপের আলোচনার আজ শেষ পর্ব। অবশ্য ১ম পর্ব সম্পর্কে আলোচনা প্রায় ১ মাস পূর্বে করেছিলাম। অবশ্য গত ১ম পর্বের আলোচনাতেই এলার্টপের মুল পর্ব শেষ করেছিলাম, সেখানে একটি পিডিএফ ফাইলও সংযোজন করে দিয়েছিলাম।

অনেকেই হয়ত প্রশ্ন রাখতে পারেন- এতদিন পর কেন ২য় অংশ নিয়ে আলোচনা করছি। এর প্রতিত্তরে বলব- যেহেতু আমি একজন শিক্ষার্থী। এখানে নিজের পড়াশোনা ও ব্যতিব্যস্তার কারনে এতদিন পোষ্ট করার সুযোগটা হয়ে উঠেনি। মূলত যারা শিক্ষাথী তারাই এই সম্পর্কে বেশ অবগত। তাছাড়া  পূর্বেই বলে নিচ্ছি – আমি কিন্তু প্রফেশনাল ব্লগারও নই। মুলত লেখাপড়ার ফাকে যতটুকু সময় পাই, পিসি অপারেট, ফ্র্রিল্যান্সিং ও ব্লগ করে সময় কাটাই। যাইহোক এই দীর্ঘ সময়ের অপেক্ষার জন্য সম্মানীত পাঠক ও ব্লগারদের নিকট আমি ক্ষমাপ্রার্থী, ও অআন্তরিকভাবে দু:খিত। অনেকেই এর মাঝে আমাকে/আমাদের মেইল ও ফেসবুকে অনুরোধ করেছিলেন এই পোষ্টের বাকি অংশটুকু পোষ্ট করতে। তাই তাদের জন্য এই পোষ্ট।

পূর্বে যারা এই পোষ্টের এলার্টপের ১ম অংশের আলোচনা পড়েন নাই তারা নিচের লিংকটিতে ক্লিক করলেই দেখতে পারবেন-

Alertpay Account ওপেন করে টাকা ইনকাম করুন ও ব্যবহারের কলা-কৌশল আলোচনা (পর্ব-০১)

——————————————————————————-

আরেকটি কথা প্রিয় প্রযুক্তি সাইট টেক টুইটস সাইটে আমি যে পোষ্ট গুলো করে থাকি এখানে আমার ক্যাম্পাসের সহপাঠীরা অনেকেই সহযোগীতা করে থাকে। আমাদের এখানে ব্নধুরা মিলে ব্লগ লেখার নিজস্ব টিম গঠন করেছি। মূলত আমরা এই সাইটের পোষ্ট গুলো অনেকটাই যৌথভাবে পাবলিশ করে থাকি। শুধু এই সাইট নই নিজেদের ব্লগ সাইট নিয়ে আমরা কাজ করছি। তাই টেকটুইটস সাইটের প্রোফাইল পরিবর্তন কিংবা পোষ্টের নিচে বিভিন্ন নামের লিংক দেখে ভিজিটরদের মতবাদ দেবার প্রয়োজন বলে মনে করছিনা।

আজ থাকছে বেসিক কিছু কলা-কৌশল। হয়ত আমার ১ ম পর্বের লেখা পড়ে অনেকেই এলার্টপে একাউন্ট তৈরির কৌশল রপ্ত করতে পেরেছেন। ফেসবুক ও মেইলে অনেকেই বিভিন্ন কমেন্ট করেছিলেন ও বিভিন্ন অনুপ্রেরনা দিয়েছেন। বেশ ভালই লেগেছে। পরিশেষে ঐ সকল পাঠক/বন্ধুদের কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তাহলে আর দেরি কেন? শুরু করা যাক-

আপনার এলার্টপে একাউন্টকে কিভাবে ভেরিফাই করবেন?

এবারতো আপনার একাউন্ট তৈরি হল। ভেরিফিকেশন করতে হবে। এখানে শুধু একাউন্ট তৈরি করলেই হবে না। ভেরিফিকেশন করার ব্যবস্থা করতে হবে।ভেরিফিকেশন না করলে কোন অবস্থাতেই আপনার এলার্টপে একাউন্ট দ্বারা লেনদেনের উপযোগী করতে পারবেন না। মুলত ভেরিফিকেশন হল- এলার্টপে কর্তৃপক্ষ অআপনাকে পরীক্ষা করবেন আপনি এলার্টপের বৈধ গ্রাহক কিনা? একবার ভেরিফিকেশন হয়ে গেলে আর কখনোই ভেরিফিকেশনের দরকার হয়না। তাহলে এবার দেখাব কিভাবে অআপনার এলার্টপে ভেরিফিকেশন করবেন।

এলার্টপে তে মূলত ০৩ ধরনের ভেরিফিকেশনের ব্যবস্থা আছে তথা-

১. Bank Transfer or Bank wire (Swift) Deposit- এখানে ব্যাংক ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে যাচাই করা হয়ে থাকে। যারা কোন ব্যাংকের গ্রাহক তাদের সেই ব্যাংকের এখানে (Swift)কোড প্রবেশ করাতে হয়। অআমাদের দেশের ব্যাংকগুলোকে এলার্টপে কর্তৃপক্ষ (Swift)কোডের ভেরিফিকেশন করতে এখনো প্রয়োজন মনে করেনি।তাই এখানে বাংলাদেশ অন্তভূক্ত নাই।

২. Credit Card Validation- এখানে যারা মাষ্টার কার্ড ব্যবহার করেন তারা ভেরিফিকেশন করাতে পারবেন। এখানে এলার্টপে তে অআপনার মাষ্টার কার্ডের পিন প্রবেশ করাতে হবে। অতপর এলার্টপে অআপনার মাষ্টার কার্ড থেকে কিছু ডলার কেটে নিবে। পরিশেষে এলার্টপে একাউন্টে গিয়ে ভেরিফিকেশনে জানাতে হবে কত ডলার কাটা হয়েছে। যদি তথ্য ঠিক দেন তাহলে একাউন্ট ভেরিফিকেশন হয়ে গেল।

৩. Complete both- এখানে কেউ যদি A ও B অপশনের দুটোই ভেরিফিকেশন করাতে চান তাহলে এই অপশনটি কাজে লাগাতে হবে।

৪. Phone Validation- এই অপশনটি সবাই ব্যবহার করেন। অআপনিও এই অপশনটি বেছে নিন। এখানে এলার্টপে কর্তৃপক্ষ অআপনার মোবাইল নম্বরে একটি গোপন কোড প্রেরন করবে। অতপর সেই কোডটি প্রবেশ করালে অআপনার একাউন্ট ভেরিফিকেশন হয়ে যাবে।

এই কাজটি করতে অআপনার একাউন্টে লগইন করুন। প্রোফাইলে ক্লিক করুন যেখানে লেখা অআছে-Verification সেটিতে ক্লিক করুন। অথবা অআপনার একাউন্টের নিচের মেনু Message Center থেকে Cheek Your Verifications Status এ- ক্লিক করুন।

নিচের চিত্রের মত-

একটি নতুন উইন্ডো অআসবে। সেখানে Phone Validation- অপশনটি বেছে নিন।এখানে মোবাইল নম্বরটি দিয়ে সেন্ড করলে আপনার মোবাইলে একটি কোড প্রেরন করা হবে। ঐ কোডটি নিদিষ্ট বক্সে লিখে OK করলে আপনার একাউন্টটি ভেরিফিকেশন হিসাবে Completed হিসাবে শো করবে। প্রাথমিকভাবে মোবাইল দিয়ে ভেরিফিকেশন করলেই হবে।পরবর্তীতে যদি মনে করেন মাষ্টার কার্ড দ্বারা ভেরিফিকেশন করবেন তা করা যাবে। ভেরিফিকেশন সঠিক হলে নিম্নরুপ চিত্র দেখাবে-

কাজের কাজ হয়ে গেল। এখন আরও কিছু অপশন আছে সেইগুলো নিয়ে আপনি নিজেই কাজ করতে পারবেন। এলার্টপের কিছু অপশনের সাথে আপনাদেরকে পরিচয় করাব। মূলত অআপনার একাউন্টে প্রবেশ করে যাবতীয় কাজ করতে পারবেন। এখানে  MY Account/Profile সিলেক্ট রেখে যাবতীয় কাজ করতে পারবেন নিচের চিত্রনুয়ায়ী-

সংক্ষেপে কিছু আলোচনা-

Personal Information- এখানে আপনার যাবতীয় তথ্যদি রয়েছে। যদি প্রয়োজনে মনে করেন তাহলে তথ্যাদি আপগ্রেড করতে পারবেন।এখানে কাজ করলে নিম্নরুপ চিত্র পাবেন

Password-           এখানে আপনি যে কোন মুহুর্তে Password পরিবর্তন করতে পারবেন।

Transaction PIN-  এটি পূর্বেই বলেছিলাম লেনদেনের ট্রানজেকশন। এটি পরিবর্তন করতে পারবেন।

Email Addresses-            এটির কোন পরিবর্তন ঘটাতে পারবেন না।

Language Preference-        ভাষা হিসাবে সিলেক্ট করতে পারবেন। তবে স্থায়ী হিসাবে ইংরাজীতে নির্বাচিত থাকে।

Verification-          এখানে অআপনার একাউন্টকে ভেরিফিকেশন করাতে হয়। যা পূর্বেই আলোচনা করেছি।

Downgrade/Upgrade Account- যে কোন সময় আপনার একাউন্টকে আপগ্রেড করতে পারবেন।অর্থা Personal Free থেকে Personal Pro/Business-এ অথবা Personal Pro/Business থেকে Personal Free তে কনভার্ট করতে পারবেন।নিচের চিত্রনুয়ায়ী-

Referrals-    রেফারেল দ্বারা আপনি ইনকাম করতে পারবেন। আপনার পরিচিত বন্ধুদেরকে ইনভাইট করতে পারবেন।এটি প্রথমেই অআমি আলোচনা করেছি।

Close Account- আপনি যদি মনে করেন পেপাল একাউন্ট চালাতে পারছেন না।তাহলে এই একাউন্টটি ডিলেট করতে পারবেন। ডিলেট করতে হলে পূর্বের Transaction PIN দিতে হবে। এখানে আপনার একাউন্ট কিন্তু চিরতরে ডিলেট হয়ে যাবে। পরবর্তীতে যদি একই মেইল থেকে যদি পূনরায় এলার্ট পে ওপেন করতে চান পারবেন না। কেননা, এলার্ট পে কর্তৃপক্ষ অআপনার মেইলকে আইপি হিসাবে চিনে রেখেছে। তাই নতুন মেইল দ্বারা একাউন্ট ওপেন করতে হবে।

আমার মতে, এটি না করাই ভাল। কেননা আপনার একাউন্ট তো অমর থাকবে। আপনি যদি ইনকাম বা লেনদেন নাও করেন কোন সমস্যা নাই।

আশা করি আপনাদের একাউন্টের প্যানেল নিয়ে অনেক কিছুই জানলেন। প্রথমদিকে একটু বুঝতে সমস্যা হতে পারে। এই ভাবে ২/৩ দিন ঘাটাঘাটি করলে ব্যাপারটা সহজেই বুঝতে পারবেন।

এলার্টপে থেকে কিভাবে টাকা পকেটে অআনবেন? বা লেনদেন করবেন?

এলার্টপে একাউনট থেকে ৪ টি ভিন্ন উপায়ে টাকা আনা যায়। এইগুলো হল-

১। Cheeck

2. Credit Card/Master Card

3. Bank Transfer

4. Bankware

এবার এইগুলো সম্পর্কে সম্পর্কে সংক্ষেপে আলোচনা করছি-

পদ্ধতিগুলো হল – চেক, ক্রেডিট কার্ড, ব্যাংক ট্রান্সফার এবং ব্যাংক ওয়্যার

১) চেক: এই পদ্ধতিতে একটি চিঠির মাধ্যমে চেক পাঠানো হয়। চেকের জন্য এলার্টপে-কে ৪ ডলার ফি দিতে হয় এবং একাউন্টে সর্বনিম্ন ২০ ডলার হলে চেকের জন্য আবেদন করা যায়। আবেদন করার ২ দিনের মধ্যে একটি চেক আপনার ঠিকানায় পাঠানো হবে, যা হাতে পেতে ২ থেকে ৩ সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে। চেকটি ডলারে পাঠানো হয় তাই যেসব ব্যাংক ডলারে চেক গ্রহণ করে সেখানে এটি জমা দিতে হবে। সরকারী ব্যাংকের মাধ্যমে চেক থেকে টাকা তুলতে অল্প একটা ফি দিতে হয়, তবে সময় বেশি নিবে। আর বেসরকারী ব্যাংকে তুলনা মূলকভাবে বেশি ফি দিতে হবে কিন্তু সময় অনেক কম লাগবে। যাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কিংবা ক্রেডিট কার্ড নেই তাদের জন্য এটি খুব দরকারি, সময় একটু বেশি লাগলেও ঝামেলা কম। প্রথম প্রথম যখন আপনার আয় কম থাকবে তখন এই পদ্ধতি ইউজ করতে পারেন। পরে আয় বাড়লে মাস্টার কার্ড নিয়ে নিতে পারেন। তবে সাবধান, আপনার এলার্ট পে অ্যাকাউন্টে আপনার ঠিকানা সঠিক ভাবে দিবেন এবং ” চেক” পাঠানোর আগে ঠিকানা ভালো ভাবে চেক করে দিবেন।

২) ক্রেডিট কার্ড: যাদের ভিসা বা মাস্টারকার্ড রয়েছে তারা এই পদ্ধতিতে খুব সহজেই টাকা আনতে পারবেন। এলার্টপে সাইটে ক্রেডিট কার্ডের কথা বলা হলেও এটি ডেবিট কার্ডও সাপোর্ট করে। এজন্য প্রথমে এলার্টপে সাইটে কার্ডটি যোগ করতে হবে। কার্ডটি যাচাই করার জন্য এলার্টপে আপনার কার্ড থেকে ১ থেকে ২ ডলারের মধ্যে একটি অর্থ এলার্টপে একাউন্টে নিয়ে আসবে। এরপর কত ডলার লেনদেন হয়েছে এবং সেই পরিমাণটি এলার্টপে সাইটে এসে একটি টেক্সটবক্সে প্রবেশ করাতে হবে। সঠিকভাবে ডলারের পরিমাণটি বলতে পারলে আপনার কার্ডটি অর্থ লেনদেনের জন্য উপযোগী হবে। লক্ষ্যণীয় যে, আপনার এলার্টপে একাউন্টে অর্থ লেনদেনের মূল মূদ্রা হিসেবে ইউরো থাকলে কার্ড যাচাইয়ের পূর্বেই ডলারে পরিবর্তন নিতে হবে। অন্যথায় সঠিকভাবে কার্ডটি যাচাই হবে না। এলার্টপে থেকে কার্ডে প্রতিবার লেনদেনে ৫ ডলার ফি দিতে হয় এবং সর্বনিম্ন ১০ ডলার উঠানো যায়, যা ৩ থেকে ৪ দিনের মধ্যে কার্ডে সরাসরি চলে আসে। এরপর নিকটস্থ ATM (যেগুলো মার্সারকার্ড সাপোর্ট করে – যেমন DBBL, Standard Chartered Bank) থেকে যে কোন সময় টাকা তোলা যায়।

৩) ব্যাংক ট্রান্সফার: এলার্টপে থেকে ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে টাকা আনা যায় না। তবে যাদের Payoneer মাস্টারকার্ডে US Virtual Account নামক সার্ভিসটি আছে তারা এই পদ্ধতিতে মাত্র ০.৫ ডলারের বিনিময়ে কার্ডে টাকা আনতে পারেন। আর সময় লাগে মাত্র ২ থেকে ৩ দিন। যারা এক বছর থেকে Payoneer কার্ডটি ব্যবহার করছেন তারা এই US Virtual Account এর জন্য Payoneer সাইটে আবেদন করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনাকে যুক্তরাষ্ট্রের First Bank of Delaware নামক ব্যাংকের একটি ভার্চুয়াল একাউন্ট দেয়া হবে। এই ব্যাংকের সাথে মাস্টারকার্ডটি যুক্ত থাকে। অর্থাৎ কেউ যদি আপনার ওই ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাঠায় তখন এটি সরাসরি আপনার কার্ডে জমা হয়ে যাবে। তবে এই ব্যাংক একাউন্ট থেকে কখনও অন্যকে আপনি টাকা পাঠাতে পারবেন না, শুধুমাত্র গ্রহণ করতে পারবেন। এলার্টপে সাইটে এই ব্যাংক একাউন্টটি যুক্ত করতে প্রথমে Add Bank Account পৃষ্ঠায় গিয়ে দেশ হিসেবে United States সিলেক্ট করতে হবে। তারপর Bank Transfer সিলেক্ট করে একাউন্টটির নাম্বার, ABA Routing নাম্বার, ব্যাংকের নাম ইত্যাদি তথ্য দিতে হবে, যা Payoneer সাইট থেকে পাওয়া যাবে। এরপর এলার্টপে থেকে আপনার একাউন্টে ১ ডলারের কম দুটি অল্প অর্থ পাঠানো হবে যা Micro Deposit নামে পরিচিত। দুই দিন পর Payonner সাইটে লগইন করে ডলার দুটি দেখতে পাবেন। এই দুটি লেনদেনের পরিমাণ এলার্টপে সাইটে এসে দুটি টেক্সটবক্সে প্রবেশ করতে হবে। সফলভাবে প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে পারলে আপনি সবচেয়ে কম খরচে এলার্টপে থেকে টাকা দেশে আনতে পারবেন।

৪) ব্যাংক ওয়্যার: যাদের কোন ভিসা বা মাস্টারকার্ড নেই তারা এই পদ্ধতিতে দেশের ব্যাংকে সরাসরি টাকা আনতে পারবেন। এটি সাইটের সবচেয়ে ব্যয়বহুল পদ্ধতি। এক্ষেত্রে খরচ পড়বে ১৫ ডলার এবং সর্বনিম্ন ৪০ ডলার হলে এই পদ্ধতিতে টাকা উঠানো যাবে। ব্যাংক ওয়্যারের মাধ্যমে আপনার ব্যাংক একাউন্টে টাকা আসতে প্রায় এক সপ্তাহের মত সময় লাগবে। ব্যাংক ওয়্যারের জন্য প্রথমে সাইটে আপনার ব্যাংক একাউন্টের নাম্বার, ব্যাংক কোড, ব্রাঞ্চ কোড এবং SWIFT CODE যোগ করতে হবে, যা আপনার ব্যাংকে যোগাযোগ করে তথ্যগুলো সংগ্রহ করতে পারেন।

এখন দেখুন কিভাবে এলার্টপে একাউন্টে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট যোগ করবেন

১. এলার্টপে একাউন্ট এ লগিন করে Overview ক্লিক করুন, তারপর “Add a bank account” ক্লিক করুন

২. তারপর সঠিক ফিল্ডে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের প্রয়োজনীয় ইনফর্মেশন গুলো ফিল আপ করে এলার্টপে একাউন্ট এ আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট টি Add করুন

এই অ্যালার্ট পে অ্যাকাউন্ট আপনার অনলাইন ব্যাংক হিসাবে কাজ করবে এবং নেটে আয়ের সাইট গুলো আপনাকে আপনার অ্যালার্ট পে অ্যাকাউন্ট এ পেমেন্ট করবে, তারপর আপনি সেই পেমেন্ট আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বা চেকে অথবা Visa বা Master ক্রেডিট/ডেবিট কার্ডে কিছু চার্জের বিনিময়ে টাকা তুলতে পারবেন।

টাকা উর্পাজন করুন Alert pay এর মাধ্যমে

আপনি খুব সহজেই Alert pay এর মাধ্যমে টাকা উর্পাজন করতে পারি
Alert pay হল টাকা আদান প্রদানের একটি মাধ্যম ,যার মাধ্যমে টাকা উপার্জন করা যায়প্রতিটি Referrals একাউন্ট এর জন্য আপনাকে দেওয়া হবে ১০ ডলার আপনি তিনটি উপায়ে Alert pay Account থেকে টাকা আয় করতে পারেন-

আপনার Referrals link পেতে Earn Money এর উপর ক্লিক করুন

তারপর Referrals এর উপর ক্লিক করুন

আপনার এই Referrals link টি copy কোরে সবার সাথে share করুন

আপনার এই Referrals link মাধ্যমে কেউ একাউন্ট করলে আপনি পাবেন ১০ ডলার
Referrals একাউন্ট এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে হলে আপনাকে কিছু শর্তপূরন করতে হবে-
Referrals must open an Alert Pay Personal Pro or Business account.

Referrals must transact $250.00 (sending and/or receiving).
After your 10th referral, we will pay you $10.00 USD a referral.
Self-referrals, or referrals from the same IP address, will not be paid out.

আজ সম্পূর্ণভাবেই এখানে  শেষ করছি এলার্টপে একাউন্টের আলোচনার বিষয়বস্তু। আশা করি আমাদের লেখা ২টি পর্ব সম্পূর্ণ পড়লে অসুবিধা থাকার কথা নই। এখানে আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করেছি বিস্তারিতভাবে প্রতিবেদনটি তৈরি করার, যাতে সকলের পড়তে ও বুঝতে সুবিধা হই। তবুও কেউ ভূলের উর্দ্ধে নই। এই পোষ্টটি বিষয়বস্তু অলংকরন করতে ও সাজাতে আমাদেরকে প্রায় ৩ দিন সময় ব্যয় করতে হয়েছে। এই পোষ্টটি পড়ে কেউ যদি উপকৃত হন তাহলেই মনে করব অআমাদের এই লেখার শ্রম ও কৌশল স্বার্থক হয়েছে। অসুবিধা বা প্রশ্ন থাকলে তা কমেন্ট করে জানাবেন। উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব-

N.B- : PLEASE  DO NOT COPY MY ANY COLLECTION & AND DO NOT SHARE IT OF OTHER PERSONS  ™ AMD

—————————————————————————————————

EDITED BY-

AMD-ASLAM-MORIOM-MEEM-POLLOB

CAMPUS FRIENDS BLOGGER TEAM

RU-6100


এ সম্পর্কিত আরো কিছু টুইট:

প্রযুক্তি প্রেমীদের প্রতিদিনের নতুন নাস্তা- প্রযুক্তির রঙ
আয় করুন আপনার ব্লগ বা ওয়েব সাইট এ এড দিয়ে , গুগল এড এর বিকল্প এড সাইট 3500 টাকা মাসে
চাকরি করা ছাড়াও সুন্দর আয় করা, স্বাধীন জীবন এবং অন্যান্য
ইন্টারনেট থেকে আয় ১০০% নতুনদের জন্য.....................
আজ আপনাদের কে adf.ly থেকে আয় করিয়েই ছাড়বো কে কে রাজি হাত উচা
পৃথিবীর সেরা পিটিসি ও রেভিনিউ সাইট থেকে অতি সহজে ডলার ইনকাম করুন।
ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে আয় করুন, মাশে ১০০ ডলার বা তারও বেশি

মন্তব্য দিনঃ

comments

About the author

বিডি টিউটোরিয়াল গিফট

বিডি টিউটোরিয়াল গিফট

BD Tutorial Gift -অনলাইন আয়ের ব্লগিং পাঠশালা! বিস্তারিত জানতে লগইন করুন- http://bdtutorialgift.blogspot.com/

Permanent link to this article: http://techtweets.com.bd/freelancing/achana-pathik/24979

5 comments

2 pings

Skip to comment form

  1. Russels Loading

    now you can get instant payout and here is no minimum payout.
    if you earn just 1cent you can payout it.
    i give you here is the link=
    http://www.big-bux.com/?ref=rasel116

    1. বিডি টিউটোরিয়াল গিফট
      Moriom

      আপনি যে এখানে লিংক দিয়েছেন তা পিটিসি সাইট তা বুঝতে পেরেছি। আসলে পিটিসি সাইট প্রতিনিয়তই মার্কেটে নতুন আসছে। এর মধ্য যে কোনটি ট্রাষ্টেড তা বলা মুশকিল। এখানে আপনি যে সাইটির লিংক দিয়েছেন- তা হতে পেমেন্ট পেয়েছেন কি? এটি কোন দেশের সাইট ও ১ ডলার অর্থ জমাতে কতদিন সময় লাগে?
      যাইহোক আমি নিজেও কোন পিটিসি সাইট করিনা, অবসর সময়ে লেখাপড়ার ফাকে ফ্রিল্যান্সার.কম সাইটে কাজ করি।
      তবে এই সব বিদেশী ও ভূয়া পিটিসি সাইট হতে বর্তমানে বাংলাদেশী পিটিসি সাইটে কাজ করাটাই হবে বুদ্ধিমানের পরিচয়।
      এই রকম একটি ট্রাষ্টেড পিটিসি সাইট হল- http://www.ptcforbd.com/

      Thanks for Comment.

  2. Russels Loading

    you should understand if you earn 1cent you can pay out instant. so click now and payout now.this is trusted.
    ar world best ptc site holo
    http://www.zeusbux.com/?ref=rasel116
    era shobcheye beshi taka pay korche. you can check it.
    etate 7 diney 1 dollar hoi.

  3. Nicotine Rasel

    just start sign up and start earning. within 2-3hours you will earn 25$
    it is not a ptc site. only normal worker can earn from here. instant payout. last night i work here and i pay money. here is the link below
    http://peoplestring.com/?u=rasel90

  4. Dgdap1

    Post ta amar ato darun lagce j comments na kora parlamna. Alart pay to akhon payza hoyce. Ai somporka airokom r 1ta post dila valo hobe

মন্তব্য করুন